নিউজ ডেস্ক : বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে আপত্তি জানিয়েছিলেন স্ত্রী। তাতেই রেগে গিয়ে স্ত্রীকে এক বছর ধরে চেন দিয়ে বেঁধে রাখল স্বামী। ঘটনাটি ঘটেছে ছত্তিশগড়ে। শুক্রবার পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করে আনে ওই নির্যাতিত মহিলাকে।

সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছে পরকীয়া বৈধ। কিন্তু তাই কি হয়! প্রকাশ্যে কি আর পরকীয়া জমে! তাই স্ত্রীকে লুকিয়েই পরকীয়ায় মজেছিলেন ছত্তিসগড়ের ডোমার প্যাটেল। তা জানতে পেরেই আপত্তি জানিয়েছিলেন স্ত্রী। আর তাতেই তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠেন স্বামী। ক্রোধ এতই চরমে পৌছয় যে স্ত্রীকে এক বছর ধরে চেন দিয়ে বেঁধে রাখেন তিনি। ছত্তিশগড়ের কাঙ্কের জেলার কাসাওহির চারামা এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই মহিলাকে প্রতিদিন রড দিয়ে মারতেন তার স্বামী। চলত চড়,ঘুষি। এমনকি জুটত না খাবারও।

দশ বছর আগে অর্থাৎ ২০০৯ সালে বিয়ে হয়েছিল ওই দম্পতির। ২ টি বাচ্চাও আছে তাদের। এই নক্কারজনক ঘটনা এড়িয়ে চলতেন পরিবারের বাকি লোকজন। মহিলা অধিকার সমিতির মারফৎ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌছয় পুলিশ। ডোমারকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে তদন্তও শুরু করেছে।