গুয়াহাটিঃ  প্রজাতন্ত্র দিবসের সকালে অসমে একের পর এক বিস্ফোরণ। অসমের তিন জায়গায় নাশকতার চেষ্টা। মাত্র কয়েক সেকেন্ডের ব্যবধানে একের পর এক বিস্ফোরণ। এখনও পর্যন্ত সে রাজ্যের তিন জায়গায় পর পর বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। ডিব্রুগড়ে গুরুদ্বারের কাছে জঙ্গিরা প্রথম বিস্ফোরণ ঘটায়। এর কয়েক মিনিটের মধ্যেই আরও দুটি জায়গা থেকে বিস্ফোরণের খবর আসে।

চারাইডিও এবং দুলিয়াজানে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে গোটা অসমজুড়ে। জানা যাচ্ছে, জঙ্গিরা গ্রেনেড বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এখনও পর্যন্ত হতাহতের কোনও খবর পাওয়া যায়নি। তবে বিশাল পুলিশবাহিনী পাঠানো হয়েছে ঘটনাস্থলে।

অসমের ডিজিপি জানিয়েছেন, ‘ডিব্রুগড়ে বিস্ফোরণের বিষয়ে খবর পেয়েছি। তদন্ত শুরু হয়েছে। ঘটনায় কে জড়িত রয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’ প্রাথমিকভাবে সন্দেহ, বিস্ফোরণের পিছনে আলফার (আই) হাত রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গি সংগঠন এই বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেনি। জানা গিয়েছে, বিস্ফোরণের তীব্রতা কম থাকায় বড়সড় দুর্ঘটনা এড়ানো গিয়েছে। তবে এই ঘটনার পরেই গোটা অসম জুড়ে নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হয়েছে। প্রত্যেকটি জায়গায় ব্যাপক তল্লাশি শুরু হয়েছে।

অন্যদিকে একের পর এক বিস্ফোরণের ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেব অসমের মুখ্যমন্ত্রী। জঙ্গিদের এহেন কার্যকলাপকে কাপুরুষের পরিচয় বলে ব্যাখ্যা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। একই সঙ্গে এই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ঘটনায় দোষীদের কড়া হাতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীর।

তবে একের পর এক বিস্ফোরণের ঘটনায় গোটা অসম জুড়ে তীব্র আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। ঘটনার পর পর ফাঁকা হয়ে গিয়েছে রাস্তাঘাট।