কলকাতা: করোনা ঢোকে পড়ল কলকাতা পুলিশ ট্রেনিং স্কুলেও৷ আক্রান্ত কলকাতা পুলিশের কমব্যাট ফোর্সের এক এএসআই৷ ভর্তি হাসপাতালে৷

সূত্রের খবর,কলকাতা পুলিশ ট্রেনিং স্কুলে কর্মরত কমব্যাট ফোর্সের এক এএসআই করেনা আক্রান্ত৷ গতকাল তাঁর নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে৷ এরপরই ওই পুলিশ কর্মীর সংস্পর্শে আসায় আরও ১৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে৷

আক্রান্ত এএসআই বাড়ি থেকেই আসতেন৷ সুতরাং কোথা থেকে কীভাবে তিনি আক্রান্ত হয়েছেন, তা জানা যায়নি৷ পরিবারের সদস্যদেরও তাই নজরে রাখা হয়েছে৷ এর আগে করোনা আক্রান্ত হয়েছে সাউথ ট্র্যাফিক গার্ডের এক কনস্টেবল৷ ডোমজুড়ের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে রয়েছেন তিনি। ওই কনস্টেবলের কিছু উপসর্গ দেখা দেওয়ার বাড়িতেই ছিলেন তিনি। এরপর তাঁর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠান হলে, রিপোর্ট পজেটিভ আসে।

লালবাজার সূত্রে জানা গিয়েছে, শেষ দিন তিনি ভিক্টোরিয়ায় সামনে কর্তব্যরত ছিলেন। এই কনস্টেবল আক্রান্ত হওয়ার পরেই তাঁর সংস্পর্শে যারা এসেছিলেন তাঁদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর বিষয়ে ভাবনাচিন্তা শুরু হয়েছে।

প্রসঙ্গত, দিন কয়েক আগে ময়দান থানার এএসআই এবং একজন সাব ইন্সপেক্টর করোনা আক্রান্ত হন। তার ঠিক পাশেই এই সাউথ ট্র্যাফিক গার্ডের কার্যালয়। ফলে সেখান থেকে কোনওভাবে কেউ সংক্রামিত হয়েছেন কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

কলকাতা পুলিশের আরও একাধিক কর্মী করোনা আক্রান্ত। গত মঙ্গল থেকে বুধবার পর্যন্ত দুই অফিসার ও এক পুলিশকর্মীর শরীরে মেলে করোনা ভাইরাস। পুলিশ জানিয়েছে, আর জি কর হাসপাতালের আউটপোস্টে কর্মরত এক পুলিশকর্মীর শরীরে ধরা পড়ল করোনা। ওই কনস্টেবলের বাড়ি বরানগরে। হৃদরোগের সমস্যা থাকায় তিনি বেশ কিছুদিন ধরে বাড়িতেই ছিলেন।সম্প্রতি চিকিৎসার জন্য বাইপাসের কাছে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানেই তাঁর শরীরে করোনা ধরা পড়ে।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ