স্টাফ রিপোর্টার,কলকাতা: বেহালার জলযন্ত্রণা ও খারাপ রাস্তা নিয়ে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়কে ফোন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ নবান্ন সূত্রে খবর, বেহালার ভাঙাচোরা রাস্তা, খারাপ নিকাশী ব্যবস্থা ও জল জমা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে অনেক চিঠি এসেছে৷

সূত্রের খবর, চিঠিগুলিতে লেখা হয়েছে ফি বছর বৃষ্টি হলেই জল জমে রাস্তায়৷ গোঁদের উপর বিষফোঁড়া বেহালার নিকাশী ব্যবস্থা৷ আবার বেশ কিছু জায়গা থেকে জল নেমে গেলেও রাস্তার যা হাল সেখানে চলাফেরা করাই দায়৷ খানা খন্দে ভরা রাস্তায় চলে ঝুঁকির যাতায়াত৷ সব মিলিয়ে বেহালার বেহাল দশা নিয়ে অতিষ্ঠ বেহালাবাসীও৷ তাদের সেই ক্ষোভ প্রকাশ পেয়েছে চিঠিগুলিতে৷ এমনটাই খবর নবান্ন সূত্রে৷

এই সব কিছুর পরিপ্রেক্ষিতে বিরক্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতার মেয়রকে ফোন করে জানতে চান বেহালায় বেহাল দশা কতদিন থাকবে? এখানকার রাস্তাই বা কেন এত ভাঙাচোরা৷ সূত্রের খবর মুখ্যমন্ত্রী মেয়রকে নির্দেশ দেন, নিকাশী বিভাগের মেয়র পারিষদকে বিষয়টি নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক৷ মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পেয়ে নিকাশী বিভাগের মেয়র পারিষদ তারক সিংয়ের সঙ্গে আলোচনা করেন শোভন৷

তারক সিং সংবাদমাধ্যমকে জানান, মেয়রের সঙ্গে কথা হয়েছে৷ ওই এলাকায় মেট্রোর কাজ চলছে৷ তাই রাস্তা ভাঙা৷ আমরা লাগাতার কাজ করছি৷ তারপরেও রাস্তা ভাঙছে৷ নিকাশীর সমস্যা হচ্ছে৷ মানুষ তা দেখছে৷ তবে কলকাতা পুরসভার কর্তাব্যক্তিরা যাই বলুক না কেন মুখ্যমন্ত্রীর মেয়রকে ফোনের পর আশার আলো দেখছেন বেহালাবাসী৷

প্রসঙ্গত উল্লেখযোগ্য সিএবি সভাপতি এবং ক্রিকেট তারকা সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় সহ আরও অনেক খ্যাতনামা ব্যক্তিত্ব বেহালায় বসবাস করেন৷