নয়াদিল্লি: ‘তেরে কো হাম ইসকা বাস্তেইচ বোলতা থা কি দারু মাত পি…মাত পি…মাত পি।’ ব্লকব্লাস্টার অমর-আকবর-অ্যান্টনি ছবিতে আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে অমিতাভ বচ্চনের এই বিখ্যাত ডায়লগ শোনেননি এমন মানুষ কমই আছেন। আর শুক্রবার হায়দরাবাদে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির মাস্টারক্লাস ব্যাটিং এক্সিবিশনকে নিজের সেই ডায়লগ ধার করেই কুর্নিশ জানালেন বিগ-বি।

শুক্রবার হায়দরাবাদ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ছুঁড়ে দেওয়া ২০৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা টিম ইন্ডিয়া হাসিল করে নেয় বিরাটের ব্যাটিং বিক্রমে। ভারত অধিনায়কের ৫০ বলে ৯৪ রানের ইনিংস সাজানো ছিল ৬টি চার ও ৬টি ছক্কায়। পাশাপাশি কেসরিক উইলিয়ানসের ডেলিভারি গ্যালারিতে পাঠিয়ে বিরাটের নোটবুক সেলিব্রেশন জয়ের উচ্ছ্বাসে আলাদা মাত্রা যোগ করে। সব দেখেশুনে চুপ থকতে পারেননি বলিউডের শাহেনশা।

মাইক্রোব্লগিং সাইটে তাঁর ব্লকব্লাস্টার ছবি অমর-আকবর-অ্যান্টনির ডায়লগ তুলে ধরে বিরাটের অতিমানবিক ইনিংসের প্রশংসা করেন অমিতাভ বচ্চন। হিন্দিতে তিনি যা লেখেন তার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায়, ‘বন্ধু কতবার তোমাকে বলেছি যে বিরাটকে রাগিও না, রাগিও না, রাগিও না। কিন্তু তুমি তো শোনোই না আমার কথা। চিঠি লিখে ধরিয়ে দিল তো হাতে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের চেহারাটা একবার দেখো। কী মারটাই না খেয়েছে, কী মার।’

বিরাটকে অভিনন্দনসূচক বিগ-বি’র এই টুইট দারুণ মনে ধরে নেটিজেনজের। সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় ভারত অধিনায়কেরও নজর এড়ায়নি শাহেনশা’র সেই টুইট। প্রত্যুত্তরে কোহলি লেখেন, ‘ডায়লগটা ভীষণ পছন্দের। আপনি সবসময় আমার অনুপ্রেরণা।’ কোহলির ব্যাটিংয়ের প্রশংসা করে শুক্রবার ম্যাচ শেষে তাঁকে দরাজ সার্টিফিকেট দেন বিপক্ষ অধিনায়ক কায়রন পোলার্ড।

ম্যাচ শেষে ‘বিরাট’ প্রশংসা করে পোলার্ড বলেন, ‘ও একজন অ্যানিমেশন চরিত্র। ও যে একজন বিশ্বমানের ব্যাটসম্যান সেটা ও প্রমাণ করতে মরিয়া থাকে সবসময়।’ উল্লেখ্য, শুক্রবার টস জিতে ফিল্ডিং নেওয়ার পর বিরাট জানান, রান তাড়া করতে বেশি পছন্দ করে তার দল। ম্যাচ শেষে যেন সেটাই অক্ষরে অক্ষরে প্রমাণিত হয় এইচসিএ স্টেডিয়ামে। ১৮.৪ ওভারে ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ শেষ করে দেন ক্যাপ্টেন। ৮ বল বাকি থাকেই ৬ উইকেটে হাসতে হাসতে ম্যাচ জিতে নেয় ভারত। সেই সঙ্গে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজে ১-০ এগিয়ে যায় বিরাটবাহিনী।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও