মুম্বই: ইচ্ছা ছিল একবার অমিতাভ বচ্চনকে দেখবেন, সেই স্বপ্ন সফল করতে গিয়েই দুষ্কৃতিদের খপ্পরে পড়ে হাসপাতালে তাঁর এক ভক্ত। দুষ্কৃতিদের ছুরির আঘাতে মারাত্মক আহত হয়েছেন ওই অমিতাভ ফ্যান।

পুলিশ সূত্রে খবর, তাঁর ওই ফ্যানের নাম আকিল শেখ। তিনি উত্তর প্রদেশের এক পোশাক ব্যবসায়ী । জানা গিয়েছে, শুধুমাত্র অমিতাভকে একবার চোখে দেখার উদ্দেশ্যে লকডাউনের সব নিয়ম কাটিয়ে সে হাজির হয় মুম্বইয়ের জুহুতে। সেখানে ৪ জুলাই সে রাস্তাতেই রাত কাটানোর সিদ্ধান্ত নিলে ঘটে বিপত্তি।

রাতে ফুটপাতে এক ব্যক্তিকে শুয়ে থাকতে দেখে তাঁর ওপুর হামলা চালায় রাজেন্দ্র ও সুরেশ কাঞ্জি খারওয়া (২০)। প্রথমে জোর করা তাঁকে মদ্যপান করানোর চেষ্টা করে তাঁরা। এরপর সেই নিয়ে বচসা বাধলে শুরু হয় হাতাহাতি। অভিযোগ, আকিল শেকে বেধড়ক মারে দুই অভিযুক্ত। এমনকি ছুরি দিয়ে আকিলের হাত, বুক ও পেটেও হামলা চালানো হয়।

এরপর দুষ্কৃতিরা তাঁর মোবাইল ফোন ও নগদ টাকা হাতিয়ে চম্পট দেয়। পুলিশ অবশ্য দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে। অন্যদিকে এখনও হাসপাতালে ভরতি অমিতাভ ভক্ত আকিল। পুলিশ জানিয়েছে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ওই দুই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।