স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শহরে একটিই পুজো উদ্বোধন করবেন দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ১ অক্টোবর কলকাতায় আসবেন অমিত। ওইদিন কলকাতায় থাকবেন। শুধুই পুজো উদ্বোধন নয়, উদ্বাস্তুদের একটি সংগঠনের ডাকা সভায় NRC এবং নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল বা সিটিজেনশিপ আমেন্ডমেন্ট এক্ট (CAB) নিয়ে বক্তব্য রাখবেন অমিত।

তবে, রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব এখনও নিশ্চিত নয় ওই সভার জন্য নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়াম ভাড়া পাওয়া যাবে কি না। ওই স্টেডিয়াম ভাড়া পাওয়া গেলে মধ্য কলকাতার কোনও পুজো উদ্বোধন করবেন অমিত শাহ। কারণ, নেতাজি ইনডোর থেকে মধ্য কলকাতার কোথাও চলে আসা বা যাওয়া অনেকটাই সুবিধা। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নিরাপত্তার কারণে পুজোর কলকাতার যান চলাচল বিঘ্নিত হোক, তা চান না স্বয়ং অমিত শাহ। ১ অক্টোবর কলকাতায় পুরোপুরি পুজো পর্ব চলবে।

এর আগে মহালয়াতে নিহত বিজেপি কর্মীদের প্রতি তর্পণ করবেন বিজেপির কার্যকরী সভাপতি জগৎ প্রকাশ নাড্ডা। ২৭ এবং ২৮ সেপ্টেম্বর, এই দুই দিন থাকবেন নাড্ডা। তার দুই দিন পরেই রাজ্যে হাজির হচ্ছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি তথা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। 2 অক্টোবর দিল্লি ফিরছেন অমিত। ঘটনাচক্রে মঙ্গলবারই, মুকুল রায় বলেছেন, “অমিত জি একটি পুজো-ই উদ্বোধন করতে পারবেন, দুটো নয়।” শহরের প্রায় ৫০টি পুজো কমিটি চায় অমিত শাহ তাঁদের পুজো উদ্বোধন করুন। কিন্তু, রাজ্য বিজেপি এখনো স্থির করে উঠতে পারেনি। কারণ অমিত শাহ’র কার্যসূচী ঠিক হয়নি।

১১ সেপ্টেম্বর দিল্লিতে রাজ্যের নেতাদের কলকাতায় আসার ব্যাপারে কথা দিয়েছিলেন অমিতম কিন্তু, কলকাতায় তাঁর কার্যসূচীর চূড়ান্ত রূপ না পেলে পার্টির পক্ষেও ঠিক করা সম্ভব হচ্ছে না যে তিনি কম পুজো উদ্বোধন করবেন। এব্যাপারে কিছুটা হলেও দিল্লির উপর নির্ভর করতে হচ্ছে রাজ্য পার্টিকে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক মন্ত্রীর নিরাপত্তার দিকটি খতিয়ে দেখে তবেই কার্যসূচী ঠিক করবেন। তারপর , ঠিক হবে কোন পুজো উদ্বোধন করবেন অমিত।

বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের পরিপ্রেক্ষিতে কৌশলগতভাবেই ‘NRC’-ইস্যুটি প্রবলভাবে প্রকাশ্যে আনতে চাইছে বিজেপি৷ ১ অক্টোবর তাই শুধু বাংলায় পুজো উদ্বোধন করতেই আসছেন না অমিত, শহরের NRC নিয়ে একটি সেমিনারও করবেন তিনি। একটি উদ্বাস্তু সংগঠনের অনুষ্ঠানে বক্তব্যও রাখবেন অমিত শাহ। সেখানে শুধু NRC নয়, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল বা সিটিজেনশিপ আমেন্ডমেন্ট বিল বা CAB নিয়েও ভাষণ দেবেন অমিত। তবে, এখানে বলে রাখা প্রয়োজন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর কোনও সফরসূচি-ই এখনো নিশ্চিত নয়। রাজ্য বিজেপির তরফে প্রস্তুতি তুঙ্গে। আয়োজকরা ধরেই স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর সফরসূচি শেষ মুহূর্তে বদল হতে পারে।