স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: বাংলায় পঞ্চায়েত ভোটে দলের সাফল্য দেখে উচ্ছ্বসিত বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। লক্ষ্য এবার লোকসভা। সেই কারণে আগামী মাসেই রাজ্যে আসতে চলেছেন দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ।

বিজেপি সূত্রে খবর, জুন মাসে রাজ্যে আসছেন অমিত শাহ। বিভিন্ন প্রান্তে সভা করার কথা রয়েছে তাঁর। মে মাসেও অমিত বাবুর বঙ্গ সফরের খবর শোনা গিয়েছিল। কিন্তু রাজ্যে পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে জটিলতা এবং কর্ণাটকে বিধানসভা নির্বাচনের কারণে তা হয়ে ওঠেনি।

রাজ্য এবং স্থানীয় নেতৃত্বের সৌজন্যেই পঞ্চায়েত নির্বাচনে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ফুটেছে পদ্ম। এর আগে কখনও বঙ্গভূমিতে এত পদ্ম দেখা যায়নি। লোকসভা নির্বাচনে দলীয় কর্মীদের আরও উজ্জীবিত করতে তাই রাজ্যে আসছেন অমিত শাহ। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে কর্মীদের নিয়ে তিনি সভা করবেন বলেও জানা গিয়েছে।

সমগ্র দেশ জুড়ে গেরুয়া ঝড় তুলতে ক্রমশ এগিয়ে চলেছে মোদী-অমিত শাহ জুটি। সেই উদ্দেশ্যে তাদের পরবর্তী লক্ষ্য বাংলা। বঙ্গ বিজয় যে আর খুব কঠিন নয়, তা পঞ্চায়েত নির্বাচনের ফল দেখে বুঝতে পেড়েছে পদ্ম শিবির। সেই কারণেই কর্মীদের বাড়তি মনোবল জোগাতে আসরে নেমেছে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব। তবে ঠিক কবে অমিত শাহ রাজ্যে আসবেন সেই বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু জানায়নি বিজেপি নেতারা।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জায়গায় সভা করবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। পঞ্চায়েত নির্বাচনে জঙ্গলমহলের মতো জায়গাগুলিতে বেশ ভালো ফল করেছে বিজেপি। সেই কারণে জঙ্গলমহলেও একাধিক জায়গায় সভা করবেন অমিত বাবু। কলকাতায় বুদ্ধিজীবীদের সঙ্গে বৈঠক করার পরিকল্পনাও রয়েছে কেন্দ্রের শাসকদলের এই শীর্ষ নেতার। একই সঙ্গে কলকাতায় একটি কর্মীসভা করবেন অমিত শাহ।

এই কর্মীসভার জায়গা নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। বঙ্গ বিজেপি-র দাবি, অমিত শাহের কর্মীসভার জন্য উপযুক্ত জায়গা ভাড়া দিতে চাইছে না রাজ্য। প্রাথমিক অবস্থায় নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে অমিত শাহের কর্মীসভা অনুষ্ঠিত করার পরিকল্পনা করেছিল বিজেপি। কিন্তু রাজ্যের বিরোধিতায় সেট ইন্ডোর স্টেডিয়াম ভাড়া পাওয়া যায়নি। এমনই অভিযোগ করেছে বিজেপির বঙ্গ ব্রিগেড। যদিও এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, “রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করছে বিজেপি।”