স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: দার্জিলিংয়ের বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে লেখা চিঠি ঘিরে অস্বস্তিতে পড়ল রাজ্য বিজেপি। তার থেকেও তাদের অস্বস্তি বেড়েছে , রাজু বিস্তাকে অমিত শাহের পাল্টা চিঠিতে। কারণ দুটি চিঠিতেই ‘গোর্খাল্যান্ড’ শব্দটির উল্লেখ রয়েছে।

জানা গিয়েছে, দিল্লি পুলিশের বিশেষ বাহিনী থেকে গোর্খাদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে, এমন অভিযোগ তুলে ১১ জুলাই শাহকে চিঠি পাঠিয়েছিলেন দার্জিলিঙের বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তা। চিঠিতে দার্জিলিং পাহাড়, তরাই, ডুয়ার্স এবং লাদাখে বসবাসকারী গোর্খাদের বিশেষ বাহিনীতে পুনর্নিয়োগের দাবি জানান তিনি। চিঠির প্রাপ্তিস্বীকার করে অমিত শাহ দার্জিলিংয়ের সাংসদকে পালটা চিঠি একটি চিঠি দিয়েছেন তাতেও উল্লেখ রয়েছে ‘গোর্খাল্যান্ড’ শব্দের। যা বিতর্ক আরও বাড়িয়েছেন।

আরও পড়ুন : ৩৭০ ধারা নয়, পাক শেলিং থেকে বাঁচতে বাঙ্কার চায় কাশ্মীর

কাশ্মীরে অনুচ্ছেদ ৩৭০ বিলোপের দু-দিন পরই সাংসদ রাজু বিস্তা বলেছিলেন, এবার পাহাড় সমস্যার স্থায়ী সমাধান করতে হবে। হয় গোর্খাল্যান্ড না হয় দার্জিলিংকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করতে হবে। তিনি এও জানিয়েছিলেন, সংসদে অধিবেশন শেষ হলেই তিনি পাহাড়ের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এর কথা বলিয়ে দেবেন।

যদিও এদিন বিজেপির মুখপাত্র সায়ন্তন বসু সাফ জানিয়ে দিয়েছেন তাঁরা গোর্খাল্যান্ড এর পক্ষে নন। তিনি বলেন, বিজেপি রাজ্য ভাগের সমর্থক নয়।