নয়াদিল্লিঃ ৩১ মে শেষ হচ্ছে চতুর্থ দফার লকডাউনের মেয়াদ। এরপর কি বাড়ানো হবে লকডাউনের মেয়াদ? এ বিষয়ে জোর চলছে জল্পনা। মনে করা হচ্ছে মন কি বাতে পঞ্চম দফার লকডাউন ঘোষণা করতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

আর এই জল্পনার মধ্যেই লকডাউন বাড়া নিয়ে দেশের সমস্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে কথা বললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। জানতে চাইলেন তাঁদের মতামত। একই সঙ্গে কোন রাজ্যের এই মুহূর্তে করোনার কি পরিস্থিতি রয়েছে সেই বিষয়েও বিস্তারিত তথ্য তিনি নিয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, লাগামছাড়া সংক্রমণে নাস্তানাবুদ দেশ। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১ লক্ষ ৫৮ হাজার ৩৩৩। করোনায় দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪ হাজার ৫৩১। এখনও পর্যন্ত ৬৭ হাজার ৬৯২ জন করোনামুক্ত হয়েছেন।

এরই মধ্যে আগামী ৩১ মে শেষ হতে চলেছে লকডাউন ৪। তবে ভারতে সংক্রমণের হার যেভাবে বাড়ছে তাতে মনে করা হচ্ছে এখনই লকডাউন ওঠা সম্ভব নয়। রবিবার মন কি বাতে পঞ্চম দফার লকডাউন ঘোষণা করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। আর তা আরও দু’সপ্তাহ বাড়ানো হতে পারে শোনা যাচ্ছে।

সঙ্গে আরও নতুন কিছু শর্ত যোগ করা হতে পারে বলেও শোনা যাচ্ছে। যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের একটি সূত্র জানাচ্ছে, এখনও পঞ্চম দফার লকডাউন নিয়ে কিছু ভাবা হচ্ছে না।

জানা যাচ্ছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ও স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ীই লকডাউন ৪ পরবর্তী ক্ষেত্রে পদক্ষেপ করতে চায় কেন্দ্রীয় সরকার। এব্যাপারে আলোচনা করছে প্রধানমন্ত্রীর দফতর। বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী দেশে নোভেল করোনাভাইরাসে।

জানা গিয়েছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ও স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে আগামী ১ জুন থেকে একগুচ্ছ সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভাবনা কেন্দ্রীয় সরকারের। আপাতত সেই বিষয়গুলি নিয়েই চূড়ান্ত পর্বের আলোচনায় ব্যস্ত প্রধানমন্ত্রীর দফতর। তবে লকডাউন পরবর্তী ক্ষেত্রেও রাজ্যগুলির মতামত নিয়েই এগোনর পক্ষপাতী কেন্দ্রীয় সরকার। রাজ্যগুলির সঙ্গে আলোচনা করেই যাবতীয় সিদ্ধান্ত নিতে চায় কেন্দ্র। মনে করা হচ্ছে এদিন সন্ধ্যায় এই বিষয়েই আলোচনা করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।