নয়াদিল্লি: জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপের পর রাষ্ট্রসংঘ থেকে রাশিয়া সকলেই ভারতের সিদ্ধান্তকে কুর্নিশ জানিয়েছে। কুড়িয়েছে অনেক প্রশংসা। এবার দক্ষিণী সুপারস্টার রজনীকান্ত এই সিদ্ধান্তের জন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ-নরেন্দ্র মোদী জুটির ভূয়সী প্রশংসা করেন।

রজনীকান্ত রবিবার তাঁদের অভিনন্দনবার্তা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, “মিশন কাশ্মীরের সাফল্যের জন্য আমার তরফ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা। সংসদে আপনার বক্তব্য অনবদ্য ছিল। মোদী জি-আমিত শাহ জুটি যেন কৃষ্ণ-অর্জুনের মত। তাঁরাই শুধু জানেন, কার কতটা ক্ষমতা। আপনাদের আগামীর শুভেচ্ছা ও গোটা দেশকে আপনাদের মাধ্যমে শুভেচ্ছা জানাই।”

পাশাপাশি, তিনি ভেঙ্কাইয়া নাইডুরও ব্যাপারেও বহু ভালো কথা বলেন। নাইডুর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “ভেঙ্কাইয়া নাইডু সবসময় মানুষের ভালোর কথা বলেন। তিনি ভূল করে রাজনীতিক হয়েছেন যেহেতু তিনি একজন খুব উচ্চমানের আধ্যাত্মিক লিডার।”

ইদের আগে ছন্দে ফিরছে জম্মু-কাশ্মীরের জনজীবন। বেশ কিছু অংশে তুলে দেওয়া হয়েছে ১৪৪ ধারা। স্কুল-কলেজও খুলছে একাধিক এলাকায়। জম্মু ও কাশ্মীর পুলিস টুইট করে জানায়, গত ৬ দিনে পুলিসের একটিও গুলি চালনার ঘটনা হয়নি উপত্যকায়। ছোট আকারের কিছু বিক্ষিপ্ত প্রতিবাদ হলেও মোটের উপর স্বাভাবিক আছে জনজীবন।

আর্টিকেল ৩৭০ এর সবকটি ধারা কাশ্মীরে প্রয়োগ হবে না। কেন্দ্রীয় সরকার ‘স্পেশাল স্ট্যাটাস’ তুলে দেওয়ার জন্যই ৩৭০ ধারাকে বাতিল করা হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। ১৯৪৭-এ কাশ্মীর অন্তভুর্ক্তির সময় চুক্তিপত্রে সই করেছিলেন রাজা হরি সিং। সেই চুক্তি ভেঙে জম্মু কাশ্মীরকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। জম্মু ও কাশ্মীরকে বিধানসভাসহ এবং লাদাখকে বিধানসভা বিহীন কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।