নয়াদিল্লি: একুশের নির্বাচনের আগে ক্রমেই রাজনৈতিক উত্তেজনার পারদ চড়ছে রাজ্যে। এই আবহে বাংলা নিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের। পশ্চিমবঙ্গে আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতির অবনতির অভিযোগ তুলে রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবিও করেছেন বিজেপি নেতাদের বেশ কয়েকজন।

এবার রাজ্য বিজেপির নেতাদের সেই দাবিকে সরাসরি সমর্থন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপির শীর্ষ নেতা অমিত শাহের। সর্বভারতীয় নিউজ চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অমিত শাহ বলেন, ‘‘সঙ্গত কারণেই বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি তুলেছেন বিজেপি নেতারা।’’

একুশের ভোটের আগে বাংলায় রাজনৈতিক উত্তেজনার পারদ কয়েকগুণ চড়িয়ে দিলেন খোদ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের পক্ষে এবার সরাসরি সওয়াল বিজেপির এই শীর্ষনেতার। রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে একগুচ্ছ অভিযোগ বিরোধীদের।

বিজেপির বাংলার নেতাদের একাংশের দাবি, এরাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসনের প্রয়োজন। রাজ্য বিজেপির কয়েকজনের সেই দাবিকেই এবার খুল্লমখুল্লা সমর্থন অমিত শাহের।

সর্বভারতীয় নিউজ চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘‘সঙ্গত কারণেই বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি তুলেছেন বিজেপি নেতারা। পশ্চিমবঙ্গের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। আমফানের ত্রাণের টাকা নিয়ে চরম দুর্নীতি হয়েছে। বাংলার জেলায়-জেলায় বোমা কারখানার হদিশ মিলছে।’’

পশ্চিমবঙ্গে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির উপর অত্যাচার করছে শাসক তৃণমূল, এমনই অভিযোগ অমিত শাহের।

এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘ভারতের আর কোনও রাজ্যে পশ্চিমবঙ্গের মতো পরিস্থিতি নেই। বাংলায় বিরোধীদের উপর অনবরত আক্রমণ চলছে। বিরোধীদের খুন করা হচ্ছে। মিথ্যা মামলায় তাঁদের ফাঁসানো হচ্ছে।’’ আগামী বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় পালাবদল হবেই, প্রত্যয়ী অমিত শাহ। তিনি বলেন, ‘‘নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে বাংলায় বদল আসবে। তৃণমূলকে বাংলা থেকে সরানোই প্রধান লক্ষ্য।’’

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।