নয়াদিল্লি: পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হচ্ছে৷ ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে চলা উত্তেজনার জেরে বাতিল করা দেওয়া হল দুদেশের মধ্যে হতে চলা বার্ষিক কোস্টগার্ড সংক্রান্ত কর্মসুচি সংক্রান্ত আলোচনা বা মেরিটাইম ডায়লগ৷ ইসলামাবাদের পক্ষ থেকে এই আলোচনা বাতিল বলে ঘোষণা করা হয়েছে৷

পুলওয়ামা হামলার পর থেকেই দুদেশের সামরিক পরিস্থিতি বেশ উত্তপ্ত৷ কাশ্মীর সীমান্তে বিনা প্ররোচনায় সংঘর্ষবিরতি চুক্তি প্রায়ই লঙ্ঘন করছে পাকিস্তান বলে দাবি ভারতের৷ সেই জেরেই বুধবার এই বার্ষিক বৈঠক বাতিল করেছে ইসলামাবাদ বলে খবর৷

আরও পড়ুন : সন্তানকে চৌকিদার বানাতে চাইলে মোদীকে ভোট দিন: কেজরিওয়াল

ইসলামাবাদের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে উত্তপ্ত সীমান্ত নিয়ে পারস্পরিক সহযোগিতার আলোচনা চলতে পারে না৷ ২০০৫ সালে ভারত পাকিস্তানের মধ্যে হওয়া মউ অনুযায়ী এই বার্ষিক মেরিটাইম ডায়লগে বসে ভারত-পাকিস্তান৷ এই চুক্তি অনুযায়ী হটলিংকের মাধ্যমে দুই দেশ অসামরিক নৌসংক্রান্ত তথ্য আদান প্রদান করে৷

একদিকে ভারতীয় কোস্ট গার্ড ও অপরদিকে পাকিস্তান মেরিটাইম সিকিওরিটি এজেন্সির মধ্যে হতে চলা এই বৈঠক হওয়ার কথা ছিল ১৯ থেকে ২১শে মার্চ৷ প্রাথমিকভাবে দুপক্ষই বৈঠকের জন্য সম্মতি জানিয়েছিল৷ ২০১৬ ও ২০১৭ সালেও এই বৈঠক বাতিল হওয়ার পরে গত বছর অর্থাৎ ২০১৮ সালে বৈঠকে বসে দুপক্ষ৷ বৈঠকে ছিলেন ভারতীয় উপকূলরক্ষী বাহিনীর ডিজি রাজেন্দ্র সিং ও পাকিস্তানের তরফে অ্যাডমিরাল জাকাউর রহমান৷ দিল্লিতে এই বৈঠক হয়৷ তার আগের বৈঠক হয়েছিল ইসলামাবাদে৷

আরও পড়ুন : সমুদ্রে শক্তিবৃদ্ধি চিনের, তৈরি হচ্ছে ৩০ হাজার টনের যুদ্ধজাহাজ

এই বৈঠকে মূলত দুদেশে বন্দী থাকা মৎস্যজীবীদের মুক্তি দেওয়ার ব্যাপারে আলোচনা হয়৷ আন্তর্জাতিক সীমানা যাতে লঙ্ঘিত না হয়, সে বিষয়েও কথা চলে৷ ২০০৮ সালের রিপোর্ট অনুযায়ী ৪২৮ জন ভারতীয় মৎস্যজীবী পাকিস্তানে বন্দী৷ তাঁদের প্রত্যর্পণের বিষয়ে বেশ কিছু অগ্রগতি হয়েছে৷