উত্তরপ্রদেশ: আমেথির বোনেদের শৌচালয় উপহার দেবে ভাইয়েরা৷ রাখি উপলক্ষ্যে বোনেদের এমনই অভিনব উপহার দেবেন আমেথির ভাইয়েরা৷ রাখির দিন বোনেদের শৌচালয় উপহার দিয়ে আক্ষরিক অর্থেই তাদের সম্মান রক্ষা করবে ভাইয়েরা৷

রাখির দিন বোনেদের নানা উপহারই দিয়ে থাকেন ভাইয়েরা৷ কিন্তু টয়লেট উপহার দেওয়ার ঘটনাটি সামনে আসার পর সারা দেশে আলোড়ন পড়ে গিয়েছে৷ পরিচ্ছন্ন দেশ ও সুষ্ঠ সমাজ গড়ে তুলতে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার অধিক মাত্রায় শৌচালয় নির্মাণের উপর জোর দিচ্ছে৷ আমেথির জেলা স্বচ্ছতা সমিতির তরফ থেকে রাজ্য জুড়ে খোলা আকাশের নীচে যত্র তত্র শৌচকর্ম বন্ধ করতে এবং স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে ‘‘অনোখি আমেথি কা অনোখি ভাই’’ নামে এক মিশন গ্রহণ করেছে৷

আমেথির চিফ ডেভেলপমেন্ট অফিসার অপূর্বা দুবে বলেন, এই মিশনের আওতায় জেলার বিভিন্ন ব্লকের ৮৫৪ জন ‘‘ভাই’’ তাদের নাম নথিভুক্ত করেছে৷ এই ভাইয়েরা তাদের নিজেদের টাকায় বোনেদের জন্য শৌচালয় নির্মাণ করেছে৷ রাখির দিন এই উপহার বোনেদের হাতে তুলে দেবেন তারা৷ অংশগ্রহণকারীদের জন্য বিশেষ পুরস্কারও থাকছে৷ লাকি ড্রয়ের মাধ্যমে তিনজনকে বেছে নেওয়া হবে৷ তাদের হাতে পঞ্চাশ হাজার টাকা ও একটি মোবাইল ফোন তুলে দেওয়া হবে৷ শৌচালয়গুলির মান ভালো করে যাচাই করার পরই তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I