ওয়াশিংটন:  ওবামার পালা শেষ হয়ে আসছে৷ আবার কি ঠান্ডা যুদ্ধে পুরোদমে নামছে আমেরিকা! ইঙ্গিত তেমনটাই…
তাঁবেদার ইউরোপীয় দেশগুলির রুশ সীমান্তে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত পেন্টাগনের। মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর অর্থাৎ পেন্টাগন জানিয়েছে, পূর্বতন রুশ স্যাটেলাইট, বর্তমানে ন্যাটোভুক্ত পূর্ব ইউরোপে একটি অতিরিক্ত সাঁজোয়া ব্রিগেড মোতায়েন করা হবে। ইউরোপে মোতায়েন মার্কিন বাহিনীর কমান্ডার জেনারেল ফিলিপ ব্রিডলাভ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ২০১৭ সালের গোড়ার দিকে এই ব্রিগেড মোতায়েন হবে। এটি মোতায়েন করা হলে ইউরোপে মার্কিন সেনাবাহিনীর তিনটি পূর্ণ কমব্যাট ব্রিগেড থাকবে। জেনারেল ব্রিডলাভের বক্তব্য অনুসারে, পূর্ব ইউরোপ সহ অন্যান্য এলাকায় ‘আগ্রাসী’ রাশিয়ার মোকাবিলায় ন্যাটোর মিত্র ও সহযোগী দেশগুলির পাশে দাঁড়ানোর জন্য ‘বন্ধু’ মার্কিন সেনা মোতায়েনের এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, “মিত্রদেরকে আমরা নিজেদের সক্ষমতার প্রমাণ দিতে চাই। আমাদের মিত্ররা তাদের দেশগুলোতে আরো অত্যাধুনিক সমরাস্ত্রসহ একটি সাঁজোয়া ব্রিগেডের উপস্থিতি দেখতে পাবে।”
গত মাসে মার্কিন প্রতিরক্ষাসচিব অ্যাশটন কার্টার তার মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাবিত বাজেট প্রকাশ করেছেন। এতে ইউরোপে মার্কিন সামরিক ব্যয় চার গুণ বাড়িয়ে ৩৪০ কোটি ডলার করা হয়েছে। পেন্টাগনের মুখপাত্র লরা সিল এ সম্পর্কে বলেছেন, ইউরোপে আমাদের স্বার্থ, আমাদের মিত্র এবং আমাদের নীতি রক্ষার জন্য সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হবে।