ওয়াশিংটনঃ   মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগ নতুন ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে।  মার্কিন আধিকারিকদের দাবি, উত্তর কোরিয়া থেকে ছুটে আসা ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করার সক্ষমতা যাচাইয়ের জন্যে এই পরীক্ষা চালানো হবে।  মার্কিন সামগ্রিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা তৈরির অংশ হিসেবে এই পরীক্ষা চালানো হবে।

পেন্টাগন আধিকারিকদের ‘কোট’ করে এমনটাই জানিয়েছে মার্কিন নিউজ চ্যানেল সিএনএন।  তাঁদের প্রকাশিত খবরে আরও বলা হয়েছে, আগামী মাসে প্রশান্ত মহাসাগরে চলবে এই পরীক্ষা।

মার্কিন এক আধিকারিকরা বলেন, অনুশীলন চলাকালে যুদ্ধজাহাজ থেকে মার্কিন প্রমিত ক্ষেপণাস্ত্রের উন্নত সংস্করণ ছোঁড়া হবে।  এখনও পর্যন্ত একবারই মাত্র এই ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।  নতুন ক্ষেপণাস্ত্রে মানোন্নত ওয়ারহেড এবং বুস্টার বসানো হয়েছে।  এতে ছুটে আসা ক্ষেপণাস্ত্রকে মধ্য আকাশে আঘাত হানার সম্ভাবনা বাড়বে।

এ ছাড়া, নতুন ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লাও বাড়বে বলে আশা করা হচ্ছে।  জাপানের সঙ্গে যৌথ ভাবে প্রমিত ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করা হয়েছে।  মধ্যপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করতে এটি ব্যবহার করা হবে।  পাশাপাশি, পৃথিবীর নিম্নকক্ষের কৃত্রিম উপগ্রহে আঘাত হানার সক্ষমতাও এর আছে।