ওয়াশিংটন: করোনা ভাইরাসের প্রকোপ আবারও দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এমতাবস্থায় জরুরি প্রয়োজনে আমেরিকার খাদ্য ও ওষুধ বিভাগ রেজেনেরন চিকিৎসার অনুমতি দিয়েছে। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যখন করোনায় আক্রান্ত হন, তখন এই ওষুধ তাঁর চিকিৎসার জন্য ব্যবহার করা হয়েছিল। এরপরেই তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন ট্রাম্প।

করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠার পর হোয়াইট হাউসে ফিরে আসার পরে ট্রাম্প একটি ভিডিওতে এই পদ্ধতির এই পদ্ধতির প্রশংসা করেন। তিনি বলেছিলেন,”এটি আমাকে ভালো করে তুলেছে। ঠিক আছে। এটাকেই নিরাময় বলা হয়।”

বলা হয়েছে, যে সব রোগীর করোনার জেরে মারাত্মক ঝুঁকি রয়েছে কেবলমাত্র তাঁরাই এই রেজেনেরনের ওষুধ ব্যবহার করতে পারবেন। হাসপাতালে ভর্তি বা অক্সিজেনের প্রয়োজন সাধারণ সমস্ত করোনা রোগীদের ক্ষেত্রে এই ওষুধ ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়নি।

উল্লেখ্য, এদিকে মার্কিন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বড় ছেলে ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়র করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ইতিমধ্যে তার করোনা পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে এবং তাকে করোনা পজিটিভ বলে ঘোষণা করা হয়েছে বলে খবর।

একজন মুখপাত্র শুক্রবার জানিয়েছেন, করোনাভাইরাসের রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর ৪২ বছর বয়সী ট্রাম্প জুনিয়রকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। তবে তার মধ্যে এখনও বিশেষ কোন উপসর্গ দেখা যাচ্ছে না। তিনি ডাক্তারদের সব ধরনের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত নির্দেশ অনুসরণ করছেন বলে জানিয়েছেন ওই মুখপাত্র।

গত এক সপ্তাহে প্রতিদিন প্রায় ১.৫ লক্ষ নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন হয়েছে। ফেব্রুয়ারি মাস থেকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আমেরিকায় মারা গিয়েছেন ২.৫৪ লক্ষ লোক। করোনা মোকাবিলা করতে গিয়ে রীতিমতো সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্পকে।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।