শ্রীনগর: ২০১৬-তে ৮জুলাই খতম করা হয়েছিল হিজবুল মুজাহিদিন কমান্ডার বুরহান ওয়ানিকে৷ আজ সেই হিজবুল কমান্ডারের খতম হওয়ার দ্বিতীয় বছর উপলক্ষ্যে হুর্রিয়তের পক্ষ থেকে বনধ ডাকা হয়েছে, সেই সঙ্গে ত্রাল মার্চ করা হবে বলেও জানা গিয়েছে৷

দক্ষিণ কাশ্মীরে কুলগামে সেনার গুলিতে তিন সাধারণ নাগরিকের মৃত্যু হওয়ায় সেখানে আগে থেকেই কার্ফিউ চলছে৷ শ্রীনগরের বেশিরভাগ এলাকাতেও কার্ফিউ থাকার সম্ভাবনা রয়েচে৷ বিশেষ করে দক্ষিণ কাশ্মীরে৷

দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগে কোকরনাগ এলাকায় ২০১৬ সালের ৮ জুলাই সেনা-জঙ্গির গুলির লড়াইয়ে বুরহান ওয়ানি খতম হয়েছিল৷ তারপর থেকে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বহুবার উপত্যকায় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে৷ চার মাস ধরে চলা বিক্ষোভে, সেনা এবং বিক্ষোভকারীদের সমস্যায় প্রায় ৮৫জনের প্রাণ গিয়েছিল৷

পড়ুন: বুরহান খতম হওয়ার বর্ষপূর্তিতে শান্তির আহ্বান জানালেন বাবা

প্রসঙ্গত, গত বছর এই দিনে একবছর পূর্ণ হওয়াতেও আতঙ্কের আবহ সৃষ্টি হয়েছিল ভূ-স্বর্গে৷ স্থানীয় বাসিন্দাদের চোখেমুখে ভয়ের ছাপ ফুটে ওঠে৷

পাক মদতপুষ্ট জঙ্গির খতম হওয়ার ঠিক একবছর পরে যাতে কোনও বিচ্ছিন্নতার সৃষ্টি না হয় তার জন্য গতবছর বন্ধ করে দেওয়া হয় ইন্টারনেট পরিষেবা৷ পিছিয়ে দেওয়া হয় উপত্যকার স্কুল ও কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা৷ জম্মু-কাশ্মীরের বিভিন্ন সংবেদনশীল জায়গায় জারি হয় কারফিউ৷ অনন্তনাগ, পালওয়ামাতে আক্রমণের আশঙ্কায় জারি করা হয় কড়া নিরাপত্তা৷ গত বছরও হামলার আশঙ্কায় প্রভাব পড়ে অমরনাথ যাত্রার উপর৷ কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয় পুরো এলাকা৷

৮ জুলাই, ২০১৬৷ এক ধাক্কায় বদলে গিয়েছিল কাশ্মীরের ছবি৷ উপত্যকার হিজবুল কম্যান্ডার বুরহান ওয়ানিকে কোকেরনাগের বিমদুরা এলাকায় তার দুই সঙ্গীর সঙ্গেই খতম করেছিল ভারতীয় সেনাবাহিনী৷ উপত্যকায় একসময় পুলিশদের ত্রাস ছিল এই বুরহান ওয়ানি৷ ২২বছরের এই যুবকের মাথা কেটে দিতে পারলেই দশ লক্ষ টাকা পুরষ্কার দেওয়া হবে৷ এমনই একটি ফতোয়াও জারি হয়েছিল এলাকা জুড়ে৷

এদিকে জম্মু-কাশ্মীরের উত্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ে চিন্তা প্রকাশ করেন রাজ্যপাল এনএন বোহরা৷ এর জন্য রাজভবনে উচ্চ-স্তরীয় বৈঠকও ডাকা হয়৷ এই বৈঠকে কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল রণবীর সিংও অংশগ্রহণ করেন বলে জানা যায়৷ সেনা-পুলিশের পদক্ষেপে, সাধারণ নাগরিকের জীবনযাপনে যাতে কোনও বাধার সৃষ্টি না হয় তার ওপরও জোর দিয়েছেন রাজ্যপাল৷ উল্লেখ্য, গত মাসেই বিজেপি-পিডিপি জোট ভাঙে৷ তারপর থেকে রাজ্যপাল শাসন চলছে ভূ-স্বর্গে৷

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I