মসুল: কুর্দিস নিউ ইয়ার উপলক্ষ্যে ছুটির মেজাজ মসুলে৷ ছুটি কাটাতে অনেকে পরিবার নিয়ে বেরিয়ে পড়েন পিকনিক করতে৷ টাইগ্রিস নদীর ওপারে রয়েছে জনপ্রিয় পিকনিক স্পট৷ সেখানে ভিড় জমান শতাধিক মানুষ৷ কিছুক্ষণ পর তাদের আনন্দ, কোলাহোল পরিণত হল আর্তনাদে৷ মর্মান্তিক নৌকা দুর্ঘটনায় প্রাণ হারালেন প্রায় ১০০ জন৷ মৃতদের মধ্যে মহিলা ও শিশুর সংখ্যাই বেশি৷

আইসিসের হাত থেকে মুক্ত হয়ে সবে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছিল মসুল৷ তাই বহু বছর পর ফের তারা টাইগ্রিস নদীর তিরে নববর্ষ উদযাপন করবেন বলে ঠিক করেন৷ কিন্তু বৃহস্পতিবারের ঘটনা তাদের আনন্দকে একমুর্হূতে দুঃস্বপ্নে পরিণত করে৷ এতগুলো মানুষের প্রাণহানিতে শোকের ছায়া মসুলে৷ খবর পেয়ে প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদেল মাহদি দুর্ঘটনাস্থলে ছুটে যান৷ তিনি তিনদিনের জাতীয় শোক পালনের ঘোষণা করেন৷ এছাড়া নৌকা দুর্ঘটনায় কোনও গাফিলতি ছিল কিনা জানতে তদন্তেরও নির্দেশ দেন৷

জানা গিয়েছে,অতিরিক্ত যাত্রী উঠে পড়ায় দুর্ঘটনার কবলে পড়ে নৌকাটি৷ সেখানে মহিলা ও শিশুর সংখ্যাই ছিল বেশি৷ সরকারি মতে, মৃতের সংখ্যা ৯৪৷ এছাড়া ৫৫ জন আহত হয়েছে৷ উদ্ধারের পর তাদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ মৃতদের মধ্যে ১৯ জন শিশু এবং ৬১ জন মহিলা৷

যুদ্ধ এবং আইসিসের হামলায় মসুলে বহু মানুষের প্রাণ গিয়েছে৷ কিন্তু এই ঘটনাকে সাম্প্রতিক কালের ভয়াবহ দুর্ঘটনা বলে অ্যাখ্যা দিচ্ছেন স্থানীয়রা৷ জানিয়েছেন, যা হয়েছে তা খুব দুঃখজনক৷ বহন ক্ষমতার থেকে বেশি যাত্রী উঠে পড়েছিল ওই নৌকায়৷ তাছাড়া কয়েকদিন ধরে বৃষ্টির কারণে মসুল বাঁধ থেকে জল ছাড়া হয়৷ ফলে টাইগ্রিস নদী ছিল জলে টইটম্বুর৷ ফেরি মালিকদের সতর্ক করা হয়েছিল৷ এই ঘটনায় ৯ ফেরি মালিককে গ্রেফতারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷