ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ফ্ল্যাটের ভিতর টলিউডের এক অভিনেত্রীকে ধর্ষণ করে সেই ভিডিও তুলে রাখার অভিযোগ উঠল তাঁরই প্রেমিকের বিরুদ্ধে। ওই অভিনেত্রী নিজেই যাদবপুর থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই তরুণী অভিনেত্রীর বাড়ি কলকাতায় না হলেও বর্তমানে কর্মসূত্রে গল্ফগ্রিনের একটি বাড়িতে তিনি থাকেন। সেখানেই ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটেছে বলে অভিযোগ।

জানা গিয়েছে, অভিনেত্রীর সঙ্গে ওই যুবকের প্রথম দেখা হয় ২০০৯ সালে। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেওয়ার ফাঁকেই মধ্যমগ্রামের যুূবকের সঙ্গে পরিচয় হয় ওই তরুণীর। এরপর তাঁদের মধ্যে আর যোগাযোগ ছিল না। এরপর ২০১৭ সালে তাঁদের ফের দেখা হয়, তখন থেকেই ঘনিষ্ঠতা বাড়ে। সেবছরই অভিনেত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দেন পেশায় ব্যবসায়ী ওই যুবক।

অভিযোগ, কিছুদিন পর থেকেই ওই যুবক ব্যবসার নাম করে তাঁর কাছ থেকে টাকা চাইতে শুরু করেন। অনেকসময় তাঁকে মারধর করা হত বলেও অভিযোগ। এরপর তাঁদের সম্পর্ক ভেঙে যায়। এরপর চলতি বছর এপ্রিল মাসে ফের ওই যুবক ফোন করে অভিনেত্রীর কাছে ক্ষমা চান। মান-অভিমান মিটে গিয়ে আবারও তাঁদের সম্পর্ক নতুন গড়ে ওঠে।

ওই তরুণী পুলিশকে জানিয়েছে, সম্প্রতি ওই যুবক তাঁর থেকে ৩০ হাজার টাকা চেয়েছিলেন। ৫ জুলাই টাকা নিতে সে অভিনেত্রীর ফ্ল্যাটে পৌঁছন। এরপর তাঁকে জাপটে ধরেন। অভিযোগ, অভিনেত্রীকে ধর্ষণ করে তাঁর অশ্লীল ভিডিয়ো করে রাখেন ওই যুবক।

অভিনেত্রী জানান, প্রথমে বেশ কয়েকদিন মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন তিনি। আত্মহত্যার কথাও ভেবেছিলেন। এরপর হিউম্যান রাইটসের সদস্যের সঙ্গে কথা বলেন। তাঁরাই তাঁর মনোবল বাড়িয়ে থানায় যাওয়ার পরামর্শ দেন। এরপর যাদবপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। চিত্তরঞ্জন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তাঁর পরীক্ষাও হয়েছে। ওই যুবকের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ