স্টাফ রিপোর্টার, বালুরঘাট: স্কুলে মিড ডে মিল রান্নাই হয়নি৷ তাই বাচ্চারা কেউ খাবারও পায়নি৷ অথচ মিডডে মিল না খাইয়েও তা খাওয়ানোর রিপোর্ট দাখিল করলেন শিক্ষক৷ এমনই অভিযোগ উঠেছে দক্ষিণ দিনাজপুরের একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে৷

ঘটনাটি জানাজানি হতেই অভিভাবক মহলে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়৷ শুক্রবার দুপুরে দক্ষিণ দিনাজপুরের কুশমন্ডি এলাকার রসুলপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবকরা গিয়ে বিক্ষোভ দেখান৷

আরও পড়ুন: পঞ্চায়েতে মমতার সরকারের ভরসা অ-বিজেপি রাজ্যের বাহিনী

ওই স্কুলটিতে পড়ুয়ার সংখ্যা ১১৮ জন৷ বৃহস্পতিবার মিড মিলের রান্না না হলেও স্কুলের প্রধান শিক্ষক সীতেন চন্দ্র সরকার ৮০ জনকে খাবার খাওয়ানো হয়েছে বলে ম্যাসেজ করে বিডিও অফিসে রিপোর্ট পাঠিয়ে দেন৷ এই অভিযোগে এদিন গ্রামবাসীরা একত্রিত হয়ে স্কুলে গিয়ে বিক্ষোভ দেখান৷

স্কুলের প্রধান শিক্ষক সীতেন চন্দ্র সরকার যদিও এই ব্যাপারে কোনও প্রতিক্রিয়া জানাতে রাজি হন নি৷ তিনি শুধু একটাই কথা জানিয়েছেন, এবিষয়ে যা জবাব দেওয়ার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকেই জানাবেন তিনি৷

আরও পড়ুন: আকাশসীমা লঙ্ঘন করে চার ঘণ্টা চক্কর কাটল চিনা যুদ্ধবিমান

এদিন গ্রামবাসীরা প্রধান শিক্ষকের শাস্তির দাবিও করেছেন৷ বিক্ষোভকারীদের মধ্যে দীপক বাগচী নামে এক অভিভাবকের অভিযোগ, স্কুলে বাচ্চাদের নিম্নমানের খাবার খেতে দেওয়া হয়৷

এমনকী কোনও কোনও দিন ডালও দেওয়া হয় না৷ এমনকী বেশির ভাগ দিন মিড ডে মিল না খাইয়েও অসত্য রিপোর্ট বিডিওকে পাঠানো হয়ে থাকে বলেও তিনি অভিযোগ করেছেন৷

আরও পড়ুন: সিপিএমের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতার বাড়িতে ভাঙচুরে অভিযুক্ত তৃণমূল