ফাইল ছবি৷

নয়াদিল্লি: ইরাকে নিখোঁজ ৩৯ জন ভারতীয় মারা গিয়েছে৷ স্বীকার করে নিলেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ৷ মঙ্গলবার রাজ্যসভায় দাঁড়িয়ে একথা জানান তিনি৷ নিহতদের স্মরণে রাজ্যসভায় দু’মিনিট নীরবতা পালন করা হয়৷

আরও পড়ুন: নিখোঁজ ভারতীয়দের এখনই মৃত বলা উচিৎ নয়: সুষমা

নিহতদের ডিএনএ পরীক্ষার পর এই বিষয়ে নিশ্চিত হয় ভারত সরকার৷ সুষমা স্বরাজ জানান, ৩৯টি দেহ বাগদাদে পাঠানো হয়েছিল ডিএনএ পরীক্ষার জন্য৷ গতকাল সেই পরীক্ষার রিপোর্ট আসে৷ ৩৮জনের ডিএনএ তাদের পরিবারের ডিএনএর সঙ্গে মিলে গিয়েছে৷ একজনের ৭০ শতাংশ ডিএনএ মিলেছে৷ মৃতদেহগুলিকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য বিদেশমন্ত্রকের প্রতিমন্ত্রী ভি কে সিংকে ইরাক পাঠানো হবে বলে জানানো হয়েছে৷

আরও পড়ুন: নিখোঁজ ভারতীয়দের এখনই মৃত বলা উচিৎ নয়: সুষমা

২০১৪ সালের জুন মাসে আইসিস জঙ্গিদের হাতে অপহৃত হয় ৪০ জন ভারতীয়৷ দীর্ঘ  টালবাহানার পর গত বছর সরকার প্রথমে জানায় অপহৃতরা সকলে মসুলের এক জেলে বন্দি আছে৷ ৩৯ জন ভারতীয়ের মধ্যে বেশিরভাগই পাঞ্জাবের বাসিন্দা৷ এছাড়া বিহার, হিমাচল প্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দাও আছেন৷ তারা সকলেই নির্মাণকর্মী৷

তবে একজন কোনরকমে আইসিস ডেরা থেকে পালিয়ে ভারতে ফিরে আসে৷ সে প্রথম থেকেই দাবি করে, নিখোঁজ ভারতীয়রা সকলেই মারা গিয়েছে৷ আইসিস জঙ্গিরা তাদের খুন করেছে৷ কিন্তু সরকার প্রথমে তা মানতে চায়নি৷ অবশেষে ডিএনএ রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর আজ সরকার মেনে নেয় নিখোঁজ ভারতীয়রা সকলে মৃত৷

আরও পড়ুন: স্বাধীন মোসুলে নিখোঁজ ৩৯ ভারতীয়র অনুসন্ধান শুরু

বিদেশমন্ত্রী জানান, মৃতদেহগুলি দেশে ফিরিয়ে আনার পর বিশেষ বিমানে প্রথমে অমৃতসর, পাটনা ও পশ্চিমবঙ্গে নিহতদের পরিবারের হাতে দেহগুলি তুলে দেওয়া হবে৷