কলকাতা:  রাজ্যে ফের ঘূর্ণাবর্ত। আর সেই কারণে বঙ্গে ফের ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস হাওয়া অফিসের। জানা যাচ্ছে, এই ফলে আগামী শনিবার পর্যন্ত গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টি চলবে। আলিপুর হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস, কলকাতা-হাওড়া-হুগলি-নদিয়া ও দুই মেদিনীপুরে এই ক’দিন বিক্ষিপ্ত ভাবে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সেই সঙ্গে কোনও কোনও এলাকায় ঝড়ো হাওয়াও বইতে পারে বলে পূর্বাভাসে জানিয়েছে আলিপুর হাওয়া অফিস।

যদিও আজ মঙ্গলবার দুপুরের পর থেকে জেলার বেশ কয়েকটি জায়গায় ছিটেফোটা বৃষ্টি হয়েছে। সন্ধ্যার পর কলকাতাতেও কয়েকপশলা বৃষ্টি হয়। এ দিন কলকাতা ছাড়াও, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বৃষ্টি হয়েছে। বয়েছে ঝড়ো হাওয়াও। আগামী কয়েকদিন এমন পরিস্থিতিই বজায় থাকবে।

অন্যদিকে, এদিন যত সময় এগিয়েছে পয়লার সকালেই ঘামে নাজেহাল শহরবাসী। বুধবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এই ডিগ্রি বেশি। আজ মঙ্গলবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এই ডিগ্রি বেশি ছিল। সোমবার দিনভর শুকনো হাওয়া বয়েছে শহর কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে। তাপমাত্রা ছিল ২৪.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তবে মঙ্গলবার সকাল থেকে আর সেই পরিস্থিতি নেই। সকাল থেকেই অনুভূত হচ্ছে গরম। বেড়েছে তাপমাত্রাও। যেমন বুধবার সকালে এক লাফে দুই ডিগ্রি বেড়েছে কলকাতার তাপমাত্রা। রবিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সকালেই ২৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পৌঁছে গিয়েছে। শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৬.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি।

অর্থাৎ তা স্বাভাবিকের থেকে আরও কিছুটা বাড়ল তাপমাত্রা। শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। শুক্রবার আলিপুর ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি ছিল। বুধবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম।