কলকাতা: মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়েছিলেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বুধবার সেখান থেকে নবান্নে ফিরে এসে রাজ্যের মুখ্যসচিবের দায়িত্ব গ্রহণ করলেন তিনি৷ তাঁর হাতে দায়িত্ব তুলে দিলেন বিদায়ী মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা৷

১৯৮৭-র ব্যাচের আইএএস অফিসার আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যে অতিরিক্ত মুখ্যসচিব পদে কর্মরত আমলাদের মধ্যে তিনিই সবচেয়ে সিনিয়র। মহকুমাশাসক, আন্ডার সেক্রেটারি এবং একাধিক জেলার জেলাশাসক হিসেবে কাজ করেছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। কলকাতা পুরসভার কমিশনার ছাড়াও পুর, পরিবহণ, শিল্পের মতো দফতরেরও দায়িত্ব সামলেছেন তিনি। স্বরাষ্ট্রের সঙ্গে তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরেরও দায়িত্বভার সামলাচ্ছেন আলাপনবাবু। বর্তমান সরকারের সময় কিছু দিন রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দায়িত্বও সামলেছিলেন তিনি।

বুধবার শিলিগুড়ি থেকে প্রশাসনিক বৈঠক শেষে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজীব সিনহা ও হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদী একসঙ্গে দমদম বিমান বন্দরে নামেন৷ সেখান থেকে সবাই সোজা চলে আসেন নবান্নে৷

তারপর বিদায়ী মুখ্যসচিব রাজীব সিনহার হাত থেকে মুখ্যসচিবের দায়িত্ব গ্রহণ করলেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এতদিন তিঁনি স্বরাষ্ট্রসচিবের দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন৷ পাশাপাশি নতুন স্বরাষ্ট্রসচিব হলেন হরেকৃষ্ণ দ্বিবেদী৷ তিঁনি ছিলেন অর্থসচিব পদে৷ পয়লা অক্টোবর থেকে নতুন পদের দায়িত্ব সামলাবেন এরা৷

অন্যদিকে বৃহস্পতিবার রাজ্যের অর্থসচিব পদের দায়িত্ব নেবেন মনোজ পন্থ৷ তিনি অর্থের সঙ্গে ভূমি ও ভূমি সংস্কার দফতরের দায়িত্বও পালন করবেন৷ এছাড়া ওই দিন পশ্চিমবঙ্গ শিল্প উন্নয়ন নিগমের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নেবেন রাজীব সিনহা৷

আগেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে জানিয়েছিলেন,রাজ্যের মুখ্যসচিব হবেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কারণ মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা ৩০ সেপ্টেম্বর অবসর নিচ্ছেন৷

সেদিন টুইটে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছিলেন, ‘‘বর্তমান স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে রাজ্যের নতুন মুখ্যসচিব পদে নিযুক্ত করা হল। আমি এটা জানাতে পেরে খুবই আনন্দিত। অর্থ দফতরের সচিব এইচ কে দ্বিবেদিকে রাজ্যের নতুন স্বরাষ্ট্রসচিব হিসেবে নিযুক্ত করা হল। মনোজ পন্থ অর্থ দফতরের সচিব পদের দায়িত্ব পেয়েছেন। ১ অক্টোবর থেকে এই তিনজন নতুন পদের দায়িত্ব সামলাবেন।”

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।