রাওয়ালপিন্ডি: ইদানিং তাঁর ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে অনুরাগীদের আরও কাছে পৌঁছে যাওয়ার চেষ্টা করছেন শোয়েব আখতার। বিভিন্ন ম্যাচ কিংবা বিভিন্ন ক্রিকেটকেন্দ্রিক ইস্যু নিয়ে তাঁর বিশ্লেষণ অনুরাগীদের বেশ পছন্দের। কিন্তু সম্প্রতি তাঁর ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে বীরেন্দ্র সেহওয়াগকে বেনজির ব্যক্তিগত আক্রমণ করে বসলেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস। যদিও পরে তিনি বলেন গোটা বিষয়টাই তিনি মজার ছলে বলেছেন।

চার বছর আগে একটি চ্যাট শো’য়ের পালটা হিসেবে প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনারকে এমন আক্রমণ করেন আখতার। ২০১৬ একটি দেশের প্রথম সারির এক কমেডিয়ানের সঙ্গে চ্যাট শো’য়ে সেহওয়াগ বলেছিলেন, ‘ভারতে ব্যবসা বাড়ানোর জন্য শোয়েব আখতার আমাদের খুব ভালো বন্ধু হয়ে উঠেছে, আমাদের প্রশংসা করছে। আপনি যদি শোয়েব আখতারের কোনও সাক্ষাৎকার দেখেন তবে আপনি লক্ষ্য করবেন ভারতের প্রশংসা করে ও নানারকম মন্তব্য করছে। কিন্তু খেলার সময় এমন প্রশংসা ওর মুখে শোনা যেত না।’

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে তাঁর সর্বশেষ ভিডিওয় সেহওয়াগের সেই মন্তব্যের পালটা দিয়েছেন শোয়েব। সেহওয়াগকে আক্রমণ করে রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস বলেন, ‘বন্ধু সেহওয়াগের পুরনো একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। আপনারা জানেন সেহওয়াগ কখনোই সিরিয়াস নয় তাঁর মন্তব্যের বিষয়ে। কিন্তু ভিডিওটিতে ও বলেছে শোয়েব আখতারের টাকার দরকার তাই ও ভারতের প্রশংসা করছে।’

কিন্তু চ্যাট শো’য়ে আনা বীরুর মন্তব্য নাকচ করে আখতার বলেন, ‘টাকা-পয়সা আল্লাহর উপর নির্ভর করে, ভারতের উপর নয়।’ এপ্রসঙ্গে সেহওয়াগকে আক্রমণ করে এরপর তিনি বলেন, ‘ওর মাথায় যত না চুল রয়েছে, আমার কাছে তার চেয়ে বেশি টাকা আছে।’যদিও পরমুহূর্তেই তিনি সেহওয়াগকে অনুরোধ করেন বিষয়টি মজার ছলে নিতে। কারণ তিনিও বিষয়টি মজার ছলেই বলেছেন।

উল্লেখ্য, নিজের ইউটিউব চ্যানেলে নিজের দেশের ক্রিকেটারদের ভুলত্রুটি নিয়ে যেমন সোচ্চার হতে দেখা যায় আখতারকে, তেমনই একাধিকবার ভারতের প্রশংসাতে পঞ্চমুখ হতে দেখা যায় শোয়েবকে। আবার প্রয়োজনে সমালোচনাও করতে শোনা যায়। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ান-ডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ হারের যেমন মশকরা করেছিলেন, ঠিক তেমনই সিরিজ জয়ের পর বিরাটদের সাধুবাদ জানিয়েছিলেন আখতার। এহেন রাওয়ালপিন্ডির আক্রমণের কোনও পালটা বীরু দেন কীনা, এখন সেটাই দেখার বিষয়।