মেলবোর্ন: প্রকৃত অধিনায়ক হতে গেলে কী কী মানদন্ড থাকা আবশ্যক? সাফল্য, বাইশ গজে আস্ফালন, প্রতিপক্ষের চোখে চোখ রেখে হুঙ্কার এগুলোই তো একজন যোগ্য অধিনায়কের গুণ। কিন্তু নমনীয়তা? একজন প্রকৃত অধিনায়কের আবশ্যিক গুণাবলীর মধ্যে যদি নমনীয়তা এতদিন অন্তর্ভুক্ত না করা হয়ে থাকে, সোমবারের পর নিশ্চিতভাবে তা জায়গা করে নেবে। সৌজন্যে আজিঙ্কা রাহানে।

পার্টটাইমার হিসেবে দায়িত্ব নিয়ে বক্সিং-ডে টেস্টের প্রথমদিন থেকেই মুগ্ধ করে চলেছেন মহারাষ্ট্রের এই ক্রিকেটার। রবিবাসরীয় মেলবোর্নে শতরান হাঁকিয়ে আসমুদ্র-হিমাচলের কুর্নিশ কুড়িয়ে নিয়েছেন। দ্বিতীয়দিন ১০৪ রানে অপরাজিত রাহানে তৃতীয়দিন সকালে ব্যক্তিগত রানের খাতায় মাত্র আট রান যুক্ত করে ১১২ রানে (২২৩ বল) ফিরলেন সাজঘরে। তবে তৃতীয়দিন মর্নিং সেশন এমনকি তার পরবর্তী সময়টা লেখা হয়ে থাকতে পারত তাঁর নামে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে রান-আউটের শিকার হয়ে ফিরলেন তিনি। টেস্ট কেরিয়ারে প্রথমবার। কিন্তু আউট হওয়ার পর ভারতের স্ট্যান্ড-ইন অধিনায়ক যেটা করলেন, তাতে ফের হৃদয় জিতে নিলেন তিনি।

অ্যাডিলেডে বিরাট কোহলি রান-আউট হওয়ার পিছনে তাঁর ভুল কলের সিদ্ধান্ত সমালোচিত হয়েছিল। ড্রেসিংরুমে ফিরে অধিনায়কের কাছে ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছিলেন অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য। আর সোমবার নিজে রান-আউট হয়ে কোনও হতাশা প্রকাশ নয়, বরং মাঠ ছাড়ার আগে হতাশা লুকিয়ে সতীর্থ রবীন্দ্র জাদেজার বুক চাপড়ে আত্মবিশ্বাস জুগিয়ে গেলেন অধিনায়ক রাহানে। ‘তোমার হাতে ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার দায়িত্ব সঁপে গেলাম’। বার্তাটা ছিল খানিকটা এরকমই। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনা হৃদয় জিতে নিয়েছে দেশের ক্রিকেট অনুরাগীদের। শতরান হাঁকিয়ে সমাদৃত হওয়ার পর আউট হয়েও দিল জিতে নিয়ে গেলেন রাহানে।

যদিও রাহানে আউট হওয়ার পর এদিন দীর্ঘায়িত হয়নি ভারতের প্রথম ইনিংস। ষষ্ঠ উইকেটে জাদেজার সঙ্গে অধিনায়কের জুটিতে মূল্যবান ১২১ রান ওঠার পর আর কোনও বড় পার্টনারশিপ তৈরি হয়নি। অর্ধশতরান পূর্ণ করে ব্যক্তিগত ৫৭ রানে ফেরেন জাদেজা। শেষদিকে যথাক্রমে ১৪ রান এবং ৯ রান আসে অশ্বিন এবং উমেশ যাদবের ব্যাট থেকে। তৃতীয়দিন মর্নিং সেশনে ৩২৬ রানে শেষ হয় ভারতের প্রথম ইনিংস। বক্সিং-ডে টেস্টে প্রথম ইনিংসে ১৩১ রানের বড়সড় লিড নেয় রাহানের ভারত।

এরপর তৃতীয়দিনের দ্বিতীয় সেশনে ২ উইকেট খুঁইয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ৬৫ রান তুলেছে অস্ট্রেলিয়া। চা-বিরতির আগে প্যাভিলিয়নে ফিরে গিয়েছেন জো বার্নস এবং মার্নাস ল্যাবুশেন। ক্রিজে ২৭ রানে অপরাজিত ম্যাথু ওয়েড। সঙ্গী স্টিভ স্মিথ অপরাজিত ৬ রানে। উইকেট দু’টি তুলে নিয়েছেন উমেশ যাদব এবং রবি অশ্বিন। তবে কাফ মাসলে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে যাদবকে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।