মুম্বইঃ  করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও মানুষের কাছে ক্রমে আকর্ষণীয় প্ল্যান নিয়ে এসে নিজেদের গ্রহণযোগ্যতা বাড়িয়েছে জিও। একাধিক প্ল্যান এবং তার সঙ্গে অতিরিক্ত বেশ কিছু সুবিধার কারণে অনান্য নেটওয়ার্ক ছেড়ে মানুষজন ক্রমেই নির্ভর করতে শুরু করেছে জিওকে।

কিন্তু ক্রমেই জিওর শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠে আসছে ভারতী এয়ারটেল। ইতিমধ্যে তারা নিয়ে এসেছে বেশ কিছু সুবিধা। আর এবারে ২৮ দিন ভ্যালিডিটির জন্য রয়েছে একাধিক সুবিধা।

ইতিমধ্যে গ্রাহকদের কথা ভেবে বেশ কিছু প্ল্যান নিয়ে এসেছে এয়ারটেল। যার কারণে সুবিধা ভোগ করছেন ইউজাররা। ইতিমধ্যে করোনা ভাইরাসের জেরে একাধিক জায়গাতেই চলছে ওয়ার্ক ফ্রম হোম। সংস্থার কর্মীরা বাড়িতে বসেই কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। যা পরিস্থিতি তাতে বছর শেষ পর্যন্ত বাড়িতে বসেই কাজ করতে হবে কর্মীদের।

আর সেই কথা মাথাতে রেখে এয়ারটেল নিয়ে আসে একের পর এক আকর্ষণীয় ডেটা প্ল্যান। একাধিক ভ্যালিডিটি যুক্ত প্ল্যান তারা নিয়ে এসেছে সাধারণের জন্য এই সময়ে। সেখানে দীর্ঘমেয়াদি প্ল্যানের সঙ্গে রয়েছে স্বল্পমেয়াদি প্ল্যান। আর স্বল্পমেয়াদি প্ল্যানের মধ্যে প্রথমে রয়েছে ২৮ দিনের ভ্যালিডিটি যুক্ত প্ল্যান।

আর সেক্ষেত্রে প্রথমে রয়েছে ২১৯ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে ১ জিবি ডেটা প্রতিদিন ব্যবহারের সুবিধা। এছাড়াও রয়েছে আন লিমিটেড কলের সুবিধা। এই প্ল্যানে ভ্যালিডিটি ২৮ দিনের। এছাড়া রয়েছে ২৪৯ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে দেড় জিবি করে ডেটা ব্যবহারের সুবিধা।

সঙ্গে রয়েছে আন লিমিটেড কল এবং মেসেজের সুবিধা। এছাড়া এই প্ল্যানে রয়েছে অতিরিক্ত বেশ কিছু সুবিধাও। এই প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ২৮ দিনের। অন্যদিকে ২৮ দিনের ভ্যালিডিটি যুক্ত প্ল্যানের মধ্যে রয়েছে ২৭৯ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে দেড় জিবি ডেটা ব্যবহারের সুবিধা।

সঙ্গে মেসেজ এবং আন লিমিটেড কলের সুযোগ। এছাড়াও রয়েছে ২৮৯ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে ২৭৯ টাকার মোট সুবিধা থাকলেও অতিরিক্ত হিসেবে রয়েছে জি ৫ দেখার সুবিধা।

দেড় জিবির বেশি ডেটা ব্যবহার করতে চাইলে রয়েছে ২৯৮ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে ২ জিবি ডেটা ব্যবহারের সুবিধা। এছাড়া রয়েছে ৩৪৯ টাকার প্ল্যান। এই প্ল্যানে রয়েছে একাধিক সুবিধা।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা