মুম্বই: কল ড্রপের জ্বালায় এখনও অতিষ্ঠ বহু মানুষ৷ মোবাইলে কথা বলতে বলতে হঠাৎ নেটওয়ার্কে সমস্যা৷ তার জেরে কেটে যাচ্ছে কল৷ বারবার বলা সত্ত্বেও কল ড্রপ সমস্যার সুরাহায় বিশেষ কোনও পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি টেলিকম অপারেটরদের৷ টেলিকম জগতে বিপ্লব ঘটিয়ে ফেলা রিলায়েন্স জিও’র বিরুদ্ধে কল ড্রপের অভিযোগ উঠেছে৷

এয়ারটেল, ভোডাফোন-আইডিয়া ও রিলায়েন্স জিও এই তিন কোম্পানি ভারতের টেলিকম বাজারের সিংহভাগ নিয়ন্ত্রণ করছে৷ একটি সমীক্ষা বলছে, এই তিন টেলিকম সংস্থার ৫৬ শতাংশ গ্রাহক কলড্রপের শিকার৷ লোকাল সার্কেল নামে ওই সমীক্ষাকারী সংস্থা জানিয়েছে, ভালো সিগন্যাল পেতে গ্রাহকদের এখনও নাকানি চোবানি খেতে হয়৷ ঘরে থাকলে সব জায়গায় ভালো করে সিগন্যাল পাওয়া যায় না৷ সিগন্যাল পেতে ঘরের চারিদিক চক্কর কাটতে হয়৷ অথবা ব্যালকনিতে দৌড় লাগাতে হয়৷

ভারতে যে তিনটি টেলিকম সংস্থা আছে তার মধ্যে এয়ারটেলের কল ড্রপ বেশি৷ তেমনটাই ধরা পড়েছে সমীক্ষা৷ এয়ারটেলের গ্রাহকরা অন্যান্য টেলিকম অপারেটরের গ্রাহকদের থেকে কল ড্রপের সমস্যায় জেরবার৷ তারপরেই আছে ভোডাফোন৷ এই দুই অপারেটর তুলনায় জিও’র কল ড্রপের সমস্যা কম৷

ট্রাইয়ের একটি রিপোর্টেও একই কথা বলা হয়েছে৷ সেখানে বলা হয়েছে রিলায়েন্স জিও ছাড়া অন্যান্য টেলিকম অপারেটরগুলি কল ড্রপের সমস্যা বেশি৷ কোন টেলিকম অপারেটরের কল ড্রপের সমস্যা কতখানি তা জানতে পরীক্ষা করা হয়৷ দেশের বিভিন্ন হাইওয়ে ও রেল রুটে নেটওয়ার্ক পরিষেবা যাচাই করার পর দেখা গিয়েছে এয়ারটেলের ৩৭ শতাংশ গ্রাহক কল ড্রপের সমস্যায় ভুগেছে৷ ভোডাফোনের ক্ষেত্রে ৩২ শতাংশ এবং রিলায়েন্স জিও’র ক্ষেত্রে তা ২৭ শতাংশ৷