নয়াদিল্লিঃ  একদিকে যখন পাক অধিকৃত কাশ্মীরকে ভারতের অধীনে নিয়ে নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিচ্ছেন বিদেশমন্ত্রী জয়শঙ্কর। অন্যদিকে তখন মাঝ আকাশ থেকে ‘অস্ত্র’ পরীক্ষা ডিআরডিও’র। একেবারে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি করা হয়েছে ‘অস্ত্র’ নামে এই মিসাইলটি। যা মাঝ আকাশ থেকে সফল পরীক্ষা করল ভারত। সমস্ত আবহাওয়াতে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি এয়ার-টু-এয়ার মিসাইলটি কতটা প্রস্তুত।

তা খতিয়ে দেখতেই মঙ্গলবার সুখোই যুদ্ধবিমান থেকে এই মিসাইলটি নিক্ষেপ করা হয়। প্রায় ৭০ কিলোমিটার দূর থেকে অব্যর্থ লক্ষ্যভেদে সক্ষম এই ক্ষেপণাস্ত্রটি। যেটি ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে থাকা মিসাইলগুলির মধ্যে অন্যতম আধুনিক এবং শক্তিশালী হিসাবেই দেখছেন সামরিক বিশেষজ্ঞরা।

অত্যাধুনিক এই মিসাইল একেবারে দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি প্রথম পর্যায়ের ক্ষেপণাস্ত্র। ওডিশা উপকূলে বঙ্গোপসাগরের উপর পরীক্ষা করা হয় এই মিসাইলটি। সফলভাবে এই মিসাইলের পরীক্ষা হওয়ার পর প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে যে, কাল্পনিক টার্গেটকে আঘাত করতে পেরেছে ভারতের এই মিসাইল। কাছ হোক কিংবা দূর সহজেই আঘাত করতে পারে এই মিসাইল। জানা গিয়েছে, রাডারের সাহায্যে ট্র্যাক করে ইলেকট্রো-অপটিক্যাল ট্র্যাকিং সেন্সর কাজে লাগিয়ে এটি লক্ষ্যপূরণ করেছে সফল ভাবে।

উল্লেখ্য, এদিনই পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতেরই অংশ। খুব শীঘ্রই তা ভারতের আওতায় নিয়ে আসা হবে। এমনটাই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী জয়শঙ্কর। তাঁর এই হুঁশিয়ারির মধ্যে অত্যাধুনিক এই মিসাইলের পরীক্ষা ভারতীয় বায়ুসেনার।