কলকাতা: বিরোধী জোট জিতলে দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রীর কে হবেন তা চূড়ান্ত নয়৷ কিন্তু তার আগেই পাকিস্তানী সংবাদ মাধ্যমের শিরোনামে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ভারতীয় বায়ু সেনার এয়ারস্ট্রাইকে কত জঙ্গি নিহত হয়েছেন? এর আগে তার হিসাব চেয়েছিলেন মমতা৷ মুখ্যমন্ত্রীর সেই কথাকেই ঢাল করে নয়াদিল্লির অভিযোগ খণ্ডনে মরিয়া পাক সংবাদমাধ্যম৷ বিষয়টি এদিন ট্যইটারের মাধামে প্রকাশ্যে এনেছেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়৷

আরও পড়ুন: অভিনন্দনের ‘এডিট’ করা ভিডিও তড়িঘড়ি ডিলিট করতে হয় পাকিস্তান সরকারকে

পুলওয়ামা হামলার পর গোটা দেশ একজোট৷ তারই মাঝে তৃণমূল সুপ্রিমোর মন্তব্যকে ব্যবহার করছে পাকিস্তান৷ বিষয়টিকে তুলে ধরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এদিন কটাক্ষ করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী৷ বিষয়টিকে অত্যন্ত লজ্জাজনক বলে ট্যইটারে লেখেন তিনি৷ মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্য জাতির প্রতি অসম্মান বলে মনে করেন বাবুল৷

ট্যুইটারে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় লেখেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বালাকোটে ভারতীয় বায়ু সেনার এয়ারস্ট্রাইকের ধ্বংস নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন৷ ওরা সেই মন্তব্যকে তুলে ধরে বলছে দেশের এক মুখ্যমন্ত্রীই জানাচ্ছে এইরকম কিছু হয়নি৷ ম মমতাজী আমাদের জাতির প্রতি অসম্মান৷

আরও পড়ুন: পাকসেনার হাসপাতালে শারীরিক অবস্থার অবনতি মাসুদের: রিপোর্ট

পাকিস্তানের বালাকোটে এয়ারস্ট্রাইকের জন্য ভারতীয় বায়ুসেনাকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এরপর বিজেপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, বলিষ্ঠ রাজনৈতিক নেতৃত্বের জন্য পাক ভূমিতে গিয়ে জঙ্গি ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিতে পেরেছে ভারত৷ এতে নিহত হয়েছে প্রায় তিনশ জন জঙ্গি৷ এরপরই সোচ্চার হন মুখ্যমন্ত্রী৷ বায়ুসেনার অভিযানকে রাজনৈতিক স্বার্থে ব্যবহার করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি৷ প্রশ্ন তোলেন ওই অভিযানে ধ্বংসের যে দাবি কেন্দ্র করছে তা কেন প্রকাশ্যে আনা হচ্ছে না৷

আরও পড়ুন: সীমান্তে অশান্তির জেরে Z plus নিরাপত্তা দেওয়া হল নেভি ও এয়ার ফোর্স চিফকে

দেশের অভ্যন্তরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই দাবি ঘিরে বিতর্ক হয়৷ পাক সংবাদ মাধ্যমও পশ্চিবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর এই মন্তব্যকে পুঁজি করে ভারত বিরোধীয়ায় সামিল হয়৷ নজর এড়ায়নি কেন্দ্রীয় শাসক দলের৷ ফলে পাক মিডিয়ার বয়ানকেই হাতিয়ার করে মমতা বিরোধীতায় সরব গেরুয়া শিবির৷ সামনেই লোকসভা৷ তার আগে মমতার মন্তব্যকে দেশের স্বার্থ হানির সঙ্গে এক করে দেখাতে চাইছে বিজেপি৷

শুধু মমতা বন্দ্যোপাধ্যাই নন, ২৭শে ফেব্রুয়ারি বিরোধী জোটের বৈঠকেও একই সুর শোনা যায় কংগ্রেস সহ অন্যান্যদের গলায়৷ তবে পাক মিডিয়ায় উঠে আসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্যই৷ ফলে বাবুল সুপ্রিয়ও সোশ্যাল মডিয়ায় সরব হয় মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে৷

আরও পড়ুন: ভারত-পাকিস্তান সংঘর্ষ হলে এই মহিলারা মুখোমুখি হতেই পারেন

প্রসঙ্গত, এর আগেও বেশ কয়েকবার মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, তিনি জঙ্গি ও তাদের কাজকর্মের বিরোধী হলেও সব পাকিস্তানীই খারাপ তা তিনি মানেন না৷ এই মনোভাবের জের হিসাবেই কলকাতার পার্ক সার্কাসে গান গান পাক গজল শিল্পী গুলাম আলী৷ তার আগে মুম্বাইয়ে প্রখ্যাত ওই পাক শিল্পীর অনুষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়া হয়৷ টি টয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচও ধরমশালার পরিবর্তে ইডেনে অনুষ্ঠিত হয়৷ ওই ম্যাচের জন্যও উদ্যোগ নেয় রাজ্য সরকার৷