ইসলামাবাদ: পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে গায়ে পড়ে যুদ্ধ করে। এমনটাই জানিয়েছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন এয়ার মার্শাল আসগর খান। পাকিস্তানেরই একটি টিভি চ্যানেলে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে এই কথাই বারবার বলেন তিনি। তিনি এও জানিয়েছেন এই জোর করে যুদ্ধের কারণেই পাকিস্তান ভারতের কাছে বারবার হেরে গিয়েছে।

আসগর খান পাক সেনা থেকে অবসর নেওয়ার পর সক্রিয়ভাবে রাজনীতিতে পাক রাজনীতিতে নেমেছিলেন। অত্যন্ত স্বচ্ছ মনোভাবাপন্ন এই প্রাক্তন এয়ার মার্শালকে পাকিস্তানের মিস্টার ক্লিন বলা হয়। সাক্ষাৎকারেও তাঁর সেই চরিত্রই ফুটে উঠেছে। একবারের জন্যেও নিজের দেশের দোষ ঢাকতে সঙ্কোচ করেননি আসগর খান। তিনি বলেন, “আমরা ভারতের সঙ্গে চারটি যুদ্ধে লড়েছি। কিন্তু এই চারটি যুদ্ধই আমরা শুরু করেছি। ভারত একবারও আমাদের উপর হামলা শুরু করেনি।”

আরও পড়ুন: কেন সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানে হামলা চালাচ্ছে না ভারতীয় সেনা?

তিনি আরও বলেন, “আমরা হামলা করেছি বলেই ভারত প্রত্যাঘাত করেছে। এর পরের ফলাফল কি হয়েছে সবার জানা। আমরা চারটি যুদ্ধেই হেরে ফিরেছি।” তিনি সাক্ষাৎকারে বলেন, “১৯৪৭ সালে ভারত-পাক যুদ্ধের সময়ে আমাদের সেন প্রধান ছিলেন খান আব্দুল করিম। জানিনা ভারতের সঙ্গে ওনার কেমন শত্রুতা ছিল। উনি ইচ্ছা করে ভারতের উপর হামলা চালান। ওনার জন্যই যুদ্ধটা লাগে এবং আমরা হেরে যাই।”

আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তারক্ষীদের হাতের স্যুটকেসটা আসলে কি?

৬৫-র ভারত পাক যুদ্ধ সম্পর্কে আসগর বলেন, “ওই যুদ্ধের আগে অবধি আমি পাকিস্তানের এয়ার ফোর্সে ছিলাম। তারপরে আমি অবসর নিয়ে নি। আমার অবসরের পরেই হঠাৎ জানতে পারি ভারতে আমরা ট্যাঙ্ক পাঠিয়ে দিয়েছি। এদিকে যে আমাদের ডিফেন্সটাও যে ফাঁকা হয়ে গিয়েছে সেটা দেখেনি কেউ। সেখান দিয়ে ঢুকেই ভারত লাহোর অবধি দখল করে নেওয়ার জায়গায় চলে গিয়েছিল।”

আরও পড়ুন: একটি নয়! মোট ১৩টি স্যাটেলাইটে শত্রুপক্ষে নজর রাখে ভারতীয় সেনা

তাঁর দাবি এই যুদ্ধে পাকিস্তান সেনার কোনোওরকম পরিকল্পনাই ছিল না। তিনি পরিকল্পনাহীন যুদ্ধে আমাদের যথারীতি হারই হয়েছিল। ৭২-এর বাংলাদেশ যুদ্ধ সম্পর্কে তিনি বলেন , “আমরা পূর্ব পাকিস্তানের মানুষদের ইচ্ছা করে মারধোর করেই নিজেদের পায়ে কুড়ুল মেরেছি।” ৯৯-এর কার্গিল যুদ্ধেও স্রেফ পরিকল্পনার অভাবেই ভারতের কাছে পাকিস্তানের হার হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আরও পড়ুন: চিন-পাক কে জবাব দিতে ৭০,০০০কোটি ব্যয় করছে ভারত