নয়াদিল্লি: আগামী ২-৩ মাসের মধ্যে ফের পরীক্ষা করা হবে ব্রহ্মোস ক্রুজ মিসাইল৷ ২০১৭ সালের নভেম্বরে এটি পরীক্ষা করা হয় তবে সমুদ্রে টার্গেটের বিরুদ্ধে৷ আর এবার লক্ষ্য ল্যান্ড টার্গেট৷ Su-30MKI ফাইটার জেট থেকে ব্রহ্মোস মিসাইল এই পরীক্ষায় সফল হলেই, যাবতীয় পরীক্ষার শেষ ধাপে এটি চলে আসবে বলে জানিয়েছেন, Brahmos Aerospace-এর উচ্চপদস্থ আধিকারিক৷

তিনি আরও জানান, ২০১৭-র নভেম্বরের ফলাফল দেখে বলা যায় পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ চলছে৷ সমুদ্রে এবং স্থলে এই মিসাইলের পরীক্ষা সম্পূর্ণ হলে ভারতীয় বায়ুসেনাবাহিনীতে একে যুক্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হবে৷

প্রসঙ্গত, SU-30 এয়ারক্র্যাফ্ট থেকে ব্রহ্মোসের সফল উৎক্ষেপনের পর থেকেই অনেকেই এটি কিনতে আগ্রহী৷ এদিকে ব্রহ্মোসের হাত ধরেই ভারতের সামরিক বিভাগের হাতেও বহু সুযোগ আসবে বলে মনে করা হচ্ছে৷ জাহাজ নির্মাণ, রাডার সিস্টেম, সাবমেরিন, যৌথ মহড়ার বিষয়েও চিলি এবং ভারতের সশস্ত্র বাহিনীর প্রধানদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে৷

বেশি কিছুদিন আগেই ‘ব্রহ্মোস’ মিসাইলের সফল পরীক্ষা করেছে ভারত। প্রসঙ্গত, আরও দ্রুত শত্রুপক্ষের দিকে মিসাইল ছুঁড়ে দিতে ভারতের হাতে আসছে অপেক্ষাকৃত হালকা ওজনের ‘ব্রহ্মোস লাইট’। এটি হালকা হওয়ায় তেজস থেকে আরও সহজে ছোঁড়া যাবে এটি। ইতিমধ্যেই নয়া এই ভার্সনের মিসাইল তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে।