নয়াদিল্লি : ৩রা মে পর্যন্ত লকডাউনের দ্বিতীয় দফা চলবে। তারপর কী হবে তা নির্ধারিত হয়নি এখনও। তবে আপাতত চৌঠা মে দিন স্থির করে বুকিং খুলল এয়ার ইন্ডিয়া। এই বিমান পরিবহণ সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে কিছু নির্দিষ্ট দেশীয় রুটে বিমান চলাচল শুরু করতে চলেছে তাঁরা। পয়লা জুন থেকে আন্তর্জাতিক উড়ান পরিষেবা শুরু করতে চায় এই সংস্থা। তবে করোনা ভাইরাস থেকে উদ্ভুত পরিস্থিতি বিচার করার পরেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

সূত্রের খবর, ৩১শে মে পর্যন্ত আন্তর্জাতিক উড়ানের বুকিং নেওয়া বন্ধ রয়েছে। তেসরা মে পর্যন্ত নেওয়া হবে দেশীয় উড়ানের বুকিং। নিজেদের ওয়েবসাইটে এয়ার ইন্ডিয়া জানাচ্ছে, পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে। উড়ানের সমস্ত তথ্য এই ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। ইতিমধ্যেই দেশের অন্যতম রাষ্ট্রায়ত্ত এয়ারলাইন এয়ার ইন্ডিয়া চিন থেকে গুরুত্বপূর্ণ চিকিৎসা সামগ্রী নিয়ে এসেছে।

এয়ার ইন্ডিয়া দুই দেশের মধ্যে চিকিৎসা সামগ্রী পরিবহনের বিষয় নিয়ে কাজ করে চলেছে দীর্ঘদিন ধরে। সেই কারণে এয়ার ইন্ডিয়ার প্রথম কার্গো বিমান ৪ এপ্রিল চিন থেকে এই ২১ টন চিকিৎসা সামগ্রী নিয়ে দেশে ফেরে। যার ফলে মনে করা হচ্ছে এই সব সামগ্রী দেশের চিকিৎসক এবং চিকিৎসা কর্মীদের ভীষণ ভাবে সাহায্য করবে।

এছাড়া জানানো হয়েছে এই দুই দেশের মধ্যে মোট ১১৬ টি বিমান চলাচল করবে লাইফ লাইন উড়ান প্রকল্পে। যার মধ্যে ৭৯ টা বিমান নিয়ন্ত্রন করবে এয়ার ইন্ডিয়া এবং এলায়েন্স এয়ার। এই কার্গো বিমানের মধ্যে কোভিড ১৯ ভাইরাস সংক্রান্ত সকল মেডিক্যাল কিট মাস্ক, গাল্ভস, এবং বাকি চিকিৎসা সামগ্রী চিন থেকে ভারতে আনা হবে।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।