অমরাবতী: সংসদের শীতকালিন অধিবেশন শেষ হওয়ার আগে ফের শিরোনামে উঠে এল তিন তালাক বিল। সৌজন্যে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড।

মুসলিম সমাজের স্বাভাবিক রীতি রেওয়াজে হস্তক্ষেপ করছে মোদী সরকার। তিন তালাক বিল নিয়ে এমন অভিযোগ করেছিল অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড। একই সুর শোনা গিয়েছিল বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলের মুখেও।

তিন তালাক বিল সংদে পেশ করলেও পাস করাতে পারেনি মোদী সরকার। পরে একপ্রকার বাধ্য হয়েই অর্ডিন্যান্স জারি করে কেন্দ্র। আইন পাস হয়ে গেলেও বিজেপি বিরোধী অনেক রাজনৈতিক দল সেই বিলের বিরুদ্ধে আপত্তি জানিয়েছল।

এবার সেই বিষয়টি নিয়েই মুখ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হল অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড। তাঁদের অভিযোগ, ‘মুসলিম সমাজের ১৪০০ বছরের পুরনো প্রথায় হস্তক্ষেপ করতে চাইছে মোদী সরকার।’ যা কখনই কাম্য নয়। সেই কারণে মোদী সরকারের তিন তালাক বিল বাতিল করার দাবি জানিয়েছে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড।

তিন তালাক বিলের বিষয়টি যাতে খতিয়ে দেখা হয় অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডুর কাছে সেই আবেদন করেছে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড। তিন তালাক বিল নিয়ে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করতে মুখ্যমন্ত্রীকে পাশে চেয়েছে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড।

সংসদের শীতকালীন অধিবেশনেই বিষয়টির মীমাংসা করার কোথাও বলছেন বোর্ডের কর্তারা। সাধ্যমতো সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু। চলতি মাসের ২৭ তারিখে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন শেষ হবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।