নয়াদিল্লি: দেশ জুড়ে প্রচার শুরু করতে এবার আসছে ‘ভারত কে মন কি বাত’। রবিবার সেই ক্যাম্পেনের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দিল্লি থেকেই উদ্বোধন হবে বলে জানিয়েছেন বিজেপির ন্যাশনাল মিডিয়া চিফ আনিল বালুনি।

ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। এই ক্যাম্পেনের মাধ্যমে বিজেপি অন্তত ১০ কোটি মানুষের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ স্থাপন করতে পারবে বলেই মনে করছে বিজেপি। সেখান থকেই আগামী লোকসভা নির্বাচনের ইস্তেহারে কী থাকবে, সেই হাওয়া বুঝে নিতে চাইছে শাসক দল।

বিভিন্ন মাধ্যমে মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করতে চাইছে বিজেপি। দলের তরফে বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘গত পাঁচ বছর ধরে আমরা বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যকলাপে উৎসাহ দিয়েছি। ভারতের অর্থনীতির স্বার্থে বিভিন্ন পরিবর্তন করা হয়েছে।

ইতিমধ্যেই লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সভায় যোগ দিচ্ছেন নরেন্দ্র মোদী। শনিবারই তিনি আসেন পশ্চিমবঙ্গে। রবিবার তাঁর কাশ্মীর যাওয়ার কথা।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।