কলকাতা: সব কথা বলার জন্য নয়! নিজের মনের খোরাকের জন্য রাখতে হয় কিছু কিছু কথা। যা মেঘলা দিনে তোমায় কাদাবে। উৎসবে হাসাবে। তাইতো গানে গানে পাওলি, পার্নোদের সামনে রেখে মন কেমনের গান বাঁধলেন মধুবন্তী বাগচী। সোজা করে বলে দিলেন, “যেমননি ঢোকে রোদ্দুর ভালবাসার। যেমনি ভাবে বৃষ্টি কেঁদে ভাসায়। ঠিক সেভাবে নিজের কথা শোন। আহারে মন। একটা চিঠি রেখে দে গোপন।” মুক্তি পেল ‘আহারে মন’-ট্রাইটেল ট্রাক ‘আহারে মন’। সৃজাতর কথায় গানটিতে সুর দিয়েছেন নীল দত্ত।

কিছু মাস আগে বাঙালির বিনোদনের পাতে, পরিচালক প্রতীম ডি গুপ্তা পরিবেশন করেছিলেন সুস্বাদু ‘মাছের ঝোল’। যা চেটেপুটে খান দর্শকরা। আর এবার পেট থেকে সোজা মনে ঢুকছেন পরিচালক। আগামী জুন মাসের ২৯ তারিখ মুক্তি পাবে প্রতীমের এই মনের কোলাজ। পরিচালকের কথায়, “আহারে মন আসলে সেলিব্রেশন অব গ্রেট অ্যাক্টিং। আমাদের যত ভালো ভালো অভিনেতা রয়েছেন, তাঁদের ভালো অভিনয়ের সেলিব্রেশন।”

আরও পড়ুন: আলিয়ার ইংরেজি ঠিক করে দিলেন বিগ বি

আলাদা আলাদা গল্পকে এক তারে বাঁধতে ভালোবাসেন পরিচালক। এবারেও তাঁর অন্যথা হয়নি। তিনি জানিয়েছেন, “চারটে আলাদা লভ স্টোরি। কিন্তু কানেক্টেড। কোথাও গিয়ে একটাই গল্প হয়ে যায়। যাঁদের হয়তো আমরা প্রেমের সঙ্গে অ্যাসোসিয়েট করি না, এটা তাঁদের প্রেমের গল্প।” তাইতো গল্পের মিশেলের সঙ্গে ‘আহারে মন’-এ থাকছে অভিনেতা-অভিনেত্রীদের জোরদার পাঞ্চ। যেখানে মনের কোলাজের সঙ্গে কখনও এসেছে পার্নো। কখনও অঞ্জন চৌধুরী আবার কখনও পাওলি, মমতা শঙ্কর আদিল হুসেন, অঞ্জন দত্ত, ঋত্বিক চক্রবর্তী ও চিত্রাঙ্গদা চক্রবর্তী। আর এসেছে তাঁদের মনের নানা কথা।

আরও পড়ুন: নাম বদলে ফেললেন বলিউডের ‘বাবলি গার্ল’

মন বোঝা বড় কঠিন। কারণ মন কখনও পাগল। কখনও সে অবুঝ। আবার কখনও অচেনা। হরেক মনের ইতিকথা দিয়ে তৈরি প্রতীমের ‘আহারে মন’। তবে এসব ছাড়িয়ে ‘আহারে মন’ ট্রেলার দেখার পর, টলিপাড়া জুড়ে তৈরি হয়েছে এক জল্পনার। অনেকে বলছেন ‘আহারে মন’-এ রয়েছেন অভিনেতা দেব। নেপথ্যে এক ছায়ামূর্তি। পর্দায় যেই তোমার হিরোইন হোক না কেন, রোম্যান্স তো তুমি আমার সঙ্গে করো। পর্দা থেকে বেরিয়ে এসে, তুমি আমার মনের মধ্যে ঢুকে যাও”-ট্রেলারের শুরুতেই মনে নাড়া দিয়ে যায় চিত্রাঙ্গদার কথা গুলি। যদিও গোটা ট্রেলারে কোথাও তাঁর হিরোর দেখা মেলিনি। তবে শেষ মুহূর্তে ছায়া হয়ে ধরা দেয় এক অবয়ব। আর এই ছায়ামূর্তি নিয়েই বেঁধেছে যত গোল। অনেকে বলছেন এই ছায়ামানব দেব। কারণ নক্সা-আকৃতি বলছে তেমনটাই। কিন্তু এখনও এই প্রসঙ্গে মুখ খোলেননি ছবির নির্মাতার। এমনকি দেবেও কিছু বলছেন না। আর তাতেই দাবানলের আকার নিয়েছে এই জল্পনা।