তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: ‘সারা বাংলা ব্যাপি কৃষি বিকাশের লক্ষ্যে’ বাঁকুড়ার ছাতনার দলপুর গ্রামে তিন দিনের কৃষি মেলা শুরু হল৷ বৃহস্পতিবার দলপুর জ্ঞানানন্দ সরস্বতী আশ্রমের উদ্যোগে এই মেলার উদ্বোধন করেন রাজ্য বীজ নিগমের ভাইস চেয়ারম্যান শুভাশীষ বটব্যাল৷

উপস্থিত ছিলেন জেলা কৃষি বিভাগের উপ-অধিকর্তা বিদ্যুৎ দাস, সমাজসেবী অনুপ পাত্র, স্থানীয় পঞ্চায়েত সমিতি ও ব্লক প্রকাশনের আধিকারীকরা৷

আরও পড়ুন: রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে কড়া প্রতিক্রিয়া রাজ্যপালের

এদিন কৃষি মেলার উদ্বোধন করে রাজ্য বীজ নিগমের ভাইস চেয়ারম্যান শুভাশীষ বটব্যাল বলেন, পতিত জমিকে ফসল ফলানোর উপযুক্ত করে তোলার কাজ করা হচ্ছে৷ কৃষি ও কৃষকের স্বার্থে রাজ্য সরকার নিরন্তর কাজ করে চলেছে৷ এই জেলায় প্রচুর পতিত জমি অনাবাদী পড়ে রয়েছে৷ সেই সমস্ত জমিকে একদিকে যেমন ফসল ফলানোর উপযুক্ত করে তোলা হচ্ছে তেমনি রাসায়নিক সারের ব্যবহার না করে জৈব প্রযুক্তির সাহায্যে চাষের উপর জোর দেওয়া হচ্ছে৷ এতে উৎপাদিত ফসল যেমন স্বাস্থ্য সম্মত হবে তেমনি চাষীর উৎপাদন খরচ কমবে ও প্রকৃতির ভারসাম্যও রক্ষা পাবে৷

তিন দিনের এই কৃষি মেলায় এলাকার চাষীরা তাদের উৎপাদিত ফসলের প্রদর্শণী করেছেন৷ একই সঙ্গে সুফল বাংলা, কৃষি, সমবায়, সেচ সহ বিভিন্ন বানিজ্যিক প্রতিষ্ঠান মিলিয়ে ২৫টি স্টল রয়েছে৷ উদ্যোক্তাদের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে প্রতিদিন সন্ধ্যায় বিভিন্ন ধরণের সাংস্কৃতিক ও বিনোদন মূলক অনুষ্ঠানের আয়োজন থাকছে৷

আরও পড়ুন: রক্ষকই ভক্ষক! মহিলাকে লাগাতার ধর্ষণে অভিযুক্ত পুলিশকর্মী

এদিন মেলায় উপস্থিত সিমলাপাল ডেভেলম্যান্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান ও সমাজসেবী অনুপ পাত্র বলেন, এবছর প্রথম এই মেলায় এলাম৷ ভাল লাগছে৷ এখানে চাষীদের উৎপাদিত ফসলের যে প্রদর্শণী হয়েছে সেখানে সব ফসলই জৈব সার ব্যবহার করা হয়েছে৷ রাসায়নিক সারের কোনও ব্যবহার হয়নি৷ এটা একটা ভালো দিক৷ এই উদ্যোগ যদি সবাই নিতে পারেন তবে তা আমাদের প্রকৃতি ও পরিবেশের পক্ষে মঙ্গলজনক হবে৷