কলকাতা- দুর্গা পুজো মানেই বাঙালির ফ্যাশন র‍্যাম্প। ঝড়, জল বা বৃষ্টি যে কোনও অবস্থাতেই সাজের সঙ্গে আপোশ করে না বাঙালি। ঝলমলে রাস্তাঘাটে তাই সবার উদ্দেশ্য একটাই। পুজোর শো স্টপার হয়ে ওঠা।

কিন্তু কতটা সাজলে, বা কোন পোশাক পরলে মানানসই লাগবে তা কিন্তু সব সময়ে বুঝে ওঠা মোটেই সহজ নয়। তাদের জন্যই তাই কলকাতা ২৪x৭-এর কাছে ফ্যাশন নিয়ে টিপস দিলেন ফ্যাশন ডিজাইনার তথা বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল।

গেরুয়া বাহিনীতে কয়েক মাস আগেই যোগ দিয়েছেন অগ্নিমিত্রা। আর এবারের পুজোয় নাকি যে রংটি ফ্যাশনে ইন সেটা হল কমলা। কমলার সঙ্গে যেহেতু গেরুয়ার অনেকটাই মিল, তাই আগেভাগেই অগ্নিমিত্রা জানিয়ে দেন বায়াসড হয়ে নয়। ফ্যাশনে এবার কমলাই ইন। তাই পছন্দ না হলেও পরতে হবে।

অগ্নিমিত্রা বলছেন, নীল, অ্যাকোয়া ব্লু এবং মিন্ট গ্রিন আন্তর্জাতিক স্তরের ফ্যাশনে ইন। কিন্তু পুজো দীপাবলী,নবরাত্রি এই উৎসবগুলিতে লাল, কমলা, ইট, ছাই, গোলাপি, আইভরি, সবুজ এই রংগুলি ইন থাকে।

কোন কমপ্লেকশনে কোন রঙের পোশাক ভাল লাগে সেই পরামর্শও দেন অগ্নিমিত্রা। তিনি বলছেন, ডাস্কি কমপ্লেকশনদের বটল গ্রিন, ডার্ক ব্রাউন, নেভি ব্লু, কালো এই রংগুলি এড়িয়ে যেতে। বরং তাঁরা গোলাপি, সবুজ, সাদা, অফ হোয়াইট, লাল, কমলা এই রংগুলি পরতে বলব। ফর্সাদের সব রং ভাল লাগলেও প্যাস্টেল রং এড়িয়ে যাওয়াই ভাল।

এবারের পুজোয় কোন পোশাকগুলি ফ্যাশনে ইন, সেই ব্যাপারেও কথা বলেন অগ্নিমিত্রা। প্রিন্টেড জাম্পস্যুট, ধুতি প্যান্টস ফ্যাশনে ইন। ধুতি প্যান্টসও বিভিন্ন ভাবে পরার পরামর্শ দিয়েছেন। এছাড়াও শর্ট ড্রেস, গাউন, লং কুর্তার সঙ্গে পালাজো, শরারা, ঘরারা এই পোশাকগুলি ফ্যাশনে খুবই ইন বলে জানান তিনি।

সকালে হালকা ও সন্ধে বেলায় ভারী সাজের পরামর্শ দিয়েছেন ফ্যাশন ডিজাইনার। এছাড়া নাকছাবি, দুল বা অ্যাকসেসরিজের মধ্যেও সামঞ্জস্য রাখতে বলছেন তিনি।

অন্যদের সাজার পরামর্শ দিলেও, পুজোর এই চারদিন বাড়িতেই থাকতে পছন্দ করেন অগ্নিমিত্রা। ফ্যাশন ডিজাইনারের কথায়, আমি এই চারদিন ছেঁড়া নাইটি পরে বাড়িতে বসে পূজাবার্ষিকী পড়ব।