কলকাতা: ফের বদলি করা হল আইপিএস অফিসারদের৷ শুক্রবার স্বরাষ্ট্র দফতর ৫ জন আইপিএসকে বদলির নির্দেশ দিয়েছে৷

নতুন নির্দেশিকায়, আইপিএস অতুল ভি আসছেন বারাসত পুলিশ জেলার এসপি হয়ে৷ এর আগে তিনি ছিলেন ডিসি- জোন ২, শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেট৷ পুরুলিয়ার এসপি করা হয়েছে আইপিএস ইন্দ্রিয়া মুখোপাধ্যায়কে৷ তাঁকেও শিলিগুড়ি থেকে পুরুলিয়ার পাঠানো হল৷ তিঁনি ছিলেন ডিসি- জোন ১, শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেট৷

এছাড়া আইপিএস ভি সলোমন নিশাকুমারকে বদলি করা হয়েছে মেদিনীপুর রেঞ্জে ডিআইজি পদে৷ তিঁনি ছিলেন যুগ্ম কমিশনার (এসটিএফ )কলকাতা৷ আইপিএস শিষরাম ঝাঝারিয়াকে ডিআইজি রেল এর পাশাপাশি অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে৷ এবং আইপিএস দেবাশিস বেজকে বদলি করা হয়েছে৷

এর আগে বছর শেষে বদল করা হয়েছিল মোট ৫৮ আইপিএস অফিসারকে। ৫৮ জন আইপিএসেরই পদোন্নতির পর তাঁদের বদলির নির্দেশ দিয়েছে নবান্ন। কলকাতা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার (সদর) হয়েছেন শুভঙ্কর সিনহা সরকার। শুভঙ্কর সিনহা সরকারের জায়গায় যুগ্ম কমিশনার (এসটিএফ)-এর দায়িত্বে এসেছেন পূর্ব মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার ভি সলমন নিশাকুমার।

কলকাতা পুলিশের প্রাক্তন গোয়েন্দা প্রধান, বর্তমানে পুলিশের যুগ্ম কমিশনার প্রবীণ ত্রিপাঠী ডিআইজি প্রেসিডেন্সি রেঞ্জের দায়িত্ব পেয়েছেন। একইসঙ্গে আইজি দক্ষিণবঙ্গ সঞ্জয় সিংয়ের জায়গায় দায়িত্বে আনা হয়েছে রাজীব মিশ্রকে। রাজীব মিশ্র এর আগে আইজি পশ্চিমাঞ্চলের দায়িত্বে ছিলেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, সাইবার অপরাধ কমানোর জন্য সিআইডিতে একটি নতুন পদ তৈরি করা হচ্ছে। সেই পদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মিতেশ জৈনকে।

মুর্শিদাবাদ রেঞ্জের ডিআইজি বাস্তব বৈদ্যকে আইজি সিআইডি পদে বদলি করা হয়েছে। অন্যদিকে, মুর্শিদাবাদ ভেঙে দু’টি পুলিশ জেলা তৈরি করেছে রাজ্য সরকার। মুর্শিদাবাদে দু’জন পুলিশ সুপার নিয়োগ করা হয়েছে। একটি মুর্শিদাবাদ পুলিশ জেলা, অন্যটি জঙ্গিপুর পুলিশ জেলায় ভাঙা হয়েছে। মুর্শিদাবাদ পুলিশ জেলার সদর দফতর হচ্ছে বহরমপুরে। জঙ্গিপুর পুলিশ জেলার সদর দফতর হবে রঘুনাথগঞ্জে।
ফাইল ছবি

মুর্শিদাবাদ পুলিশ জেলার দায়িত্বে আসছেন অজিত সিংহ যাদব। জঙ্গিপুর পুলিশ জেলার দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে অভিষেক গুপ্তাকে। বর্তমানে জেলার পুলিশ সুপার মুকেশ কুমার পদোন্নতি পেয়ে এই জেলারই দায়িত্বে থাকছেন। মুকেশ কুমার ডিআইজি পদে প্রোমোশন পেয়েছেন।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ