শেষ হয়েও হইল না শেষ। কথা বলছি রাজশ্রীর হানিমুন নিয়ে। প্রেমের জোয়ারে গা ভাসিয়ে নিউইয়র্কের রাস্তায় ঘুরছেন রাজ শুভশ্রী। হট লুকের এই ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন টলি ডিভা। আর তা নিয়েই লোক জন বলা বলি করছে এই প্রেম আর থামার নয়। অনেকে আবার বলছেন দুবাই সফর শেষ করে বউকে নিয়ে নাকি হানিমুন করতেই নিউইয়র্ক পাড়ি দিয়েছেন রাজ।

টলিউডের এই হিট কাপল শিরোনাম থেকে সরে যাওয়ার নয়। কারণ তাঁদের প্রেম,বিচ্ছেদ, আবার সম্পর্ক, এমনকি তাঁদের বিয়ে সব কিছু নিয়ে কম জলঘোলা হয়নি।বিয়ের পর কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন রাজ। ‘অ্যাডভেঞ্চার অফ জোজো’ সিনেমার শুটিং করতে বউকে নিয়েই অরুণাচল গিয়েছিলেন টলিউডের চকোলেট বয়। তবে কাজের মাঝে বউকে সময় দিতেও ভোলেননি তিনি। কাজ শেষ করেই দুবাই তে টুকরো হানিমুন টাও সেরে ফেলে ছিলেন তিনি। তবে সেই হানিমুনে কি আর মন ভরে। তাই এই নিউইয়র্ক যাত্রা।

শুধু তো বউ আর হানিমুন নিয়ে থাকলে পেট ভরবে না। তাই বিয়ের পর কাজটাও সারছেন জোরকদমে। প্রসঙ্গত তাঁর নতুন ছবি ‘অ্যাডভেঞ্চারস অফ জোজো’। কিছুদিন আগে মুক্তি পেয়েছে এই ছবির পোষ্টার। আজকাল প্রায় বিলুপ্তর পথে পশ্চিমবঙ্গের রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার।আর এই বিষয় টা নিয়েই ছবির গল্প বুনছেন রাজ। এদিকে দিন দিন বেড়ে চলেছে চোরা শিকারিদের উপদ্রব। আর এই জঙ্গলের চোর শিকার এবার রাজের হাতিয়ার। এই ছবিতে জোজোর ভূমিকায় দেখা যাবে অভিনেতা জয়জিৎ চট্টোপাধ্যায়ের ছেলে জশোজিৎকে। চার্মিং হানিমুন কতটা রাজকে চার্জ করতে পারে এখন সেটাই দেখার বিষয়।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I