কলকাতা: ক্রিকেট প্রশাসনের চেয়ারে বসেই আইপিএল ফ্যাঞ্চাইজির পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করবেন সৌরভ গঙ্গেপাধ্যায়৷ আসন্ন আইপিএলেই দিল্লি ক্যাপিটালসের ডাগ-আউটে দেখা যাবে সিএবি প্রেসিডেন্টকে৷ বোর্ড ও আইপিএল টেকনিক্যাল কমিটি থেকে ইস্তফা দিয়ে ‘conflict of interest’ এড়ালেন সৌরভ৷

প্রথম দু’টি আইপিএলের সেমিফাইনালে উঠলেও ১১টি সংস্করণে এখনও ট্রফির স্বাদ পায়নি দিল্লি ফ্যাঞ্চাইজি। প্রথমবার ট্রফি জয়ের লক্ষ্যে মরিয়া দিল্লি আসন্ন আইপিএলে প্রস্তুত কিছু করে দেখাতে। নিলামে কলিন ইনগ্রাম, অক্ষর প্যাটেল কিংবা অভিজ্ঞ ইশান্ত শর্মাকে দলে নিয়েছে তারা। এছাড়া দলে শিখর ধাওয়ান, ঋষভ পন্ত কিংবা পৃথ্বী শ’র মতো তারকারা তো রয়েছেনই। এবার ট্রফি জয়ের লক্ষ্যে হেড কোচ রিকি পন্টিংয়ের সঙ্গে দিল্লি দলে যুক্ত হল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের নাম।

মালিকানা বদল হয়ে ডেয়ারডেভিলস থেকে এবার দিল্লি ক্যাপিটালস নামে আসন্ন আইপিএলে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে দিল্লির ফ্র্যাঞ্চাইজি দলটি৷ তাদের সঙ্গে এবার যুক্ত হল প্রাক্তন ভারত তথা নাইট অধিনায়ক সৌরভের নাম৷ কিন্তু বোর্ডের পদাধিকারী হয়েও কীভাবে আইপিএল ফ্র্যাঞ্চাইজিতে যোগ দিলেন মহারাজ৷ প্রশ্নের উত্তরে সৌরভ বলেন, ‘কোনও conflict of interest নেই৷ কারণ আমি দিল্লি ক্যাপিটালসের অ্যাডভাইজার হিসেবে যোগ দেওয়ার আগে নিয়ম মেনে বোর্ড ও আইপিএল টেকনিক্যাল কমিটি থেকে ইস্তফা দিয়েছি৷ আর সিএবি প্রেসিডেন্ট হিসেবে কোনও স্বার্থের সংঘাতের প্রশ্ন নেই কারণ এতে আইপিএল কোনও ভাবে প্রভাবিত হবে না৷ এছাড়াও দিল্লি ক্যাপিটালসে আমি সাম্মানিক পদে রয়েছি৷ রিকি পন্টিংই প্রধান কোচ৷’

সৌরভকে তাদের পরামর্শদাতা হিসেবে নিয়োগ প্রসঙ্গে দিল্লি ক্যাপিটালসের চেয়ারম্যান পার্থ জিন্দাল জানান, ‘সৌরভের মতো একজন ক্রিকেটারের অভিজ্ঞতা ও উপদেশ যে আমাদের দলকে দারুণভাবে উপকৃত করবে সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই। উনি আমাদের পরিবারেরই একজন এবং তাঁকে পরামর্শদাতা হিসেবে পেয়ে আমরা উচ্ছ্বসিত।’ শ্রেয়াস আইয়ারের নেতৃত্বাধীন দিল্লি ক্যাপিটালস আসন্ন আইপিএলে তাদের অভিযান শুরু করবে ২৬ মার্চ। ঘরের মাঠে প্রথম ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ গতবারের চ্যাম্পিয়ন চেন্নাই সুপার কিংস।