স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: ২০১৬ সালের পর সবথেকে কমেছে অপরিশোধিত তেলের দাম।অপরিশোধিত তেলের ২৫ শতাংশ কমেছে। ফলে সারা সপ্তাহ জুড়েই তেলের দাম কমার এই প্রবনতা বজায় রয়েছে। ঠিক এমন সময় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার পেট্রোলের ওপর স্পেশাল এক্সাইজ ডিউটি বা শুল্ক বাড়ালো। এরপরেও দাম কমল কলকাতায়।

মোদী সরকার পেট্রোলের উপর শুল্ক ২ টাকা থেকে এক ফে বাড়িয়ে ৮ টাকা করে দিয়েছে। ডিজেলের ক্ষেত্রে শুল্ক বাড়ানো হয়েছে লিটারে ৪ টাকা করে। সরকারি বিজ্ঞপ্তি জারি করে একথা জানানো হয়েছে। বেড়েছে রোড সেস এছাড়াও পেট্রোলে রোড সেস বাড়ানো হয়েছে বিটার পিছু ১ টাকা করে। ডিজেলে বাড়ানো হয়েছে ১০ টাকা। পেট্রোল ডিজেলে দাম বৃদ্ধির আশঙ্কা এক্সাইজ ডিউটি বাড়ার ফলে দেশে তেলের দাম বৃদ্ধি হতে টলেছে তা ধরেই নেওয়া যায়। সামঞ্জস্য আনতে ব্যবস্থা, সাফাই সরকারের তবে শুল্ক বৃদ্ধির বেশিরভাগটাই কাজে আসবে বিশ্বের বাজারে তেলের দাম হ্রাসের সঙ্গে সামঞ্জস্য আনতে। এদিন অন্তর্জাতিক বাজারে ১ ব্যারেল তেলের দাম ৩৩ ডলার।

তবে এত কিছুর পরেও কলকাতায় পেট্রোলের দাম শনিবারেও বেশ কিছুটা কমেছে। এদিন কলকাতার বাজারে পেট্রোলের দাম ৭২.৫৭ টাকা। শুক্রবার সেই দাম ছি ৭২.৫৭ টাকা। দাম কমল ১৩ পয়সা। ডিজেল ৬৫ থেকে ৬৪-র ঘরে চলে এসেছে। শনিবার কলকাতায় পেট্রোলের মতই কমেছে ডিজেলের দাম। ৬৪.৯১ টাকায় মিলছে ডিজেল। ৬৫.০৭ টাকা থেকে ১৬ পয়সা কমে এই দামে এসে পৌঁছেছে ডিজেল।

কলকাতায় এরপরেও দাম কমল কীভাবে ? বলা হচ্ছে, ক্রুড ওয়েলের দাম এতটাই কমেছে যে শুল্ক ব্যাপক পরিমাণে বাড়িয়েও দাম কমাকে আটকানো যায়নি। এবার দেখার কতদিন এই দাম কমে।