প্রতীকি ছবি

বেজিং: স্মার্টফোনের যুগে বাজারে হাজির নানা সংস্থা। যদিও সবাইকে পিছনে ফেলে আপাতত রাজ করছে ‘অ্যাপল’ই। তবে চিনও কিন্তু পিছিয়ে নেই। জিওমি কিংবা হুয়াইয়ের মত সংস্থার হাত ধরে বিশ্বের স্মার্টফোনের বাজারে সাড়া ফেলেছে চিন। তবে চিন থেকে হাজার মাইল দূরে এক দেশের বাজার ছেয়ে ফেলেছে অপেক্ষাকৃত কম পরিচিত এক চিনা সংস্থার ফোন। এমনকি আইফোনকেই পাত্তা দিচ্ছে না সেই দেশ।

মোবাইল সংস্থাটির নাম ‘টেকনো’ আর দেশটির নাম আফ্রিকা। আফ্রিকার সবচেয়ে জনপ্রিয় ফোন হল টেকনো। এমনকী চিনেও এদের তেমন বাজার নেই। কিন্তু আফ্রিকায় রমরমিয়ে ব্যবসা চালাচ্ছে সেই ফোন।

আফ্রিকার লাগোস, নাইরোবি, আদ্দিস আবাবাসহ বিভিন্ন শহরের ব্যস্ত রাস্তার পাশে শুধু একটি ছবিই দেখা যায়। এটা হলো নীল রঙয়ের টেকনো ফোনের চিহ্ন সম্বলিত স্টোর। চিনে টেকনোর একটি স্টোরও নেই। এর হেডকোয়ার্টার দেশটির শেনজেনে। তবে টেকনোর অফিস খুব বেশি নজরে আসে না।

সাফল্য পাওয়ার জন্য বিশেষ কৌশলেই আফ্রিকার বাজার দখল করেছে চিন। এখনও পর্যন্ত চিনে ব্যবসা করার কোনও পরিকল্পনাই নেই প্রতিষ্ঠানটির। সংস্থার মূল কোম্পানি ট্রানশানের প্রতিষ্ঠাতা জর্জ জু প্রায় এক দশক ধরে আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ ঘুরেছেন অন্য একটি মোবাইল কোম্পানির সেলস হেড হিসেবে। তখন তিনি বুঝতে পারেন, উন্নত দেশে যে ফোন বিক্রি করা হয় সেগুলো আফ্রিকার জন্য উপযুক্ত নয়।

২০০০ সালের শুরুতে চিন সরকার ‘গোয়িং আউট’ নামের একটি প্রকল্প হাতে নেয়। এতে দেশের বাইরে বিশেষ করে আফ্রিকায় ব্যবসা সম্প্রসারণের উদ্যোগ নেওয়া হয়। ওই সুযোগ নিয়েই টেকনো চালু করেন জু।