কেপটাউন: করোনার জন্য পিছিয়ে গেল আফ্রিকা কাপ অফ নেশনস৷ ২০২১-এর পরিবর্তে এই টুর্নামেন্টটি হবে ২০২২-এর জানুয়ারিতে৷ মঙ্গলবার কনফেডারেশন অফ আফ্রিকান ফুটবল এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সিএএফ-এর সভাপতি আহমেদ আহমেদ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, কোভিড-১৯ স্বাস্থ্য সঙ্কট মার্চ মাস থেকে বেশিরভাগ মহাদেশ জুড়ে ফুটবলকে স্থগিত করেছে এবং যোগ্যতা প্রতিযোগিতাটি শেষ করতে খুব কম সময় ফেলেছে৷

আফ্রিকান নেশসন কাপ পূর্ব সূচি অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ৯ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। কিন্তু এক বছরের জন্য তা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ অর্থাৎ টুর্নামেন্টটি হবে ২০২২-এর জানুয়ারিতে৷

আহমেদ বলেন, ‘করোনভাইরাস স্বাস্থ্যের পরিস্থিতি সম্পর্কে অনিশ্চয়তার কারণে এবং বিশেষত সময়সূচী সমস্যার কারণে চার দফার বাছাইপর্বের আন্তর্জাতিক ম্যাচের জন্য অক্টোবরের ও নভেম্বর উইন্ডোতে লাগানো দরকার বলে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল৷’

আফ্রিকা নেশনস চ্যাম্পিয়নশিপ, যা কেবল স্থানীয়ভাবে ভিত্তিক খেলোয়াড়দের নিয়ে গঠিত অর্ধ-জাতীয় দলের টুর্নামেন্ট, এখন জানুয়ারিতে অনুষ্ঠিত হবে এই বছরের এপ্রিল থেকে স্থগিত হওয়া নেশনস কাপের জন্য প্রাথমিকভাবে পরিকল্পনা করা হয়ে গিয়েছে৷

ক্যামেরুনকে এই বছরের আফ্রিকান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনাল এবং ফাইনাল অনুষ্ঠিত হতে বলা হবে, সিএএফের কার্যনির্বাহী কমিটি একটি বৈঠকে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেখানে একক সেমিফাইনাল পর্ব এবং তারপরে ফাইনাল, সম্ভবত সেপ্টেম্বরে হবে বলে জানিয়েছেন সিএএফ সভাপতি।

একই পদ্ধতিটি আফ্রিকান কনফেডারেশন কাপের জন্য ব্যবহৃত হবে, সেমিফাইনাল পর্বের আগে স্থগিত করা হয়েছিল। এর শেষ তিনটি খেলা মরক্কোয় অনুষ্ঠিত হবে।

‘তবে মহামারী নিয়ে কী ঘটে এবং পরিস্থিতি কী হবে তা আমাদের দেখতে হবে। আমরা আজ একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছি তবে আগামীকাল এ সবই বদলে যেতে পারে,’ আহমেদ আরও জানান।

সিএএফ এই বছরের আফ্রিকান মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপটি স্ক্র্যাপ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। গত বছর কঙ্গো প্রত্যাহার করার পর থেকে কোনও নতুন হোস্টের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV