মীরপুর: ক’দিন আগেই চট্টগ্রামে সিরিজের একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশকে পরাজিত করেছে আফগানিস্তান৷ সেই ধাক্কা সামলে ওঠার আগেই আফগানদের হাতে আরও একবার লাঞ্ছিত হতে হলো শাকিব আল হাসানদের৷ এবার ত্রি-দেশীয় টি-২০ সিরিজে আফগানিস্তানের কাছে বিধ্বস্ত হলো টাইগাররা৷

 জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ৷ জিম্বাবোয়েকে গত ম্যাচে পরাজিত করেছেন আফগানরাও৷ এবার বাংলাদেশের সঙ্গে মুখোমুখি লড়াইয়ে রশিদ খানরা জয় তুলে নেয় ২৫ রানের ব্যবধানে৷ ফলে প্রথম রাউন্ডের শেষে আয়োজক বাংলাদেশকে টপকে লিগ শীর্ষে চলে আসে আফগানিস্তান৷

শের-ই-বাংলা ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন আফগান দলনায়ক রশিদ৷ নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটের বিনিময়ে ১৬৪ রান তোলে আফগানিস্তান৷ প্রাথমিক বিপর্যয় কাটিয়ে দুরন্ত হাফসেঞ্চুরি করেন মহম্মদ নবি৷ দলের ইনিংসে কার্যকরী অবদান রাখেন আসগর আফগান৷ মহম্মদ সইফুদ্দিন অনবদ্য বোলিং করেন৷ বল হাতে নজর কাড়েন বাংলাদেশ অধিনায়ক শাকিবও৷

আরও পড়ুন: হ্যাজার্ডের অভিষেকে জয়ে ফিরল রিয়াল মাদ্রিদ

পালটা ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ ১৯.৫ ওভারে ১৩৯ রানে অল-আউট হয়ে যায়৷ মাহমুদুল্লাহ ও সাব্বির রহমান ছাড়া বলার মতো রান করতে পারেননি আর কেউই৷ বল হাতে অপ্রতিরোধ্য ছিলেন মুজিব উর রহমান৷ পাল্লা দিয়ে উইকেট তোলেন ফরীদ আহমেদ, রশিদ খান ও গুলবদিন নায়েব৷

আফগান ইনিংসের শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি৷ ম্যাচের প্রথম বলেই ওপেনার রহমানুল্লাহ গুরবাজ (০) আউট হন৷ দ্বিতীয় ওভারেই ফিরে যান অপর ওপেনার হজরতউল্লাহ জাজাই (১)৷ তিন নম্বরে ব্যাট করতে নামা নাজীব তারাকাই ১১ রান করে সাজঘরে ফেরেন৷ ১৯ রানের মধ্যে টপ অর্ডারের তিন জন ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে বসে আফগানিস্তান৷ নাজিবুল্লাহ জাদরান আউট হন ৫ রান করে৷ আফগানিস্তান ৪০ রানে ৪ উইকেট খোয়ায়৷

আরও পড়ুন: টানা সাতটি ছয় হাঁকালেন নবি-জাদরান, ত্রিদেশীয় সিরিজে জিম্বাবোয়েকে হারাল আফগানিস্তান

পঞ্চম উইকেটের জুটিতে নবিকে সঙ্গে নিয়ে আসগর আফগান ৭৯ রান যোগ করেন৷ আসগর আউট হন ব্যক্তিগত ৪০ রানে৷ ৩৭ বলের ইনিংসে ৩টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন তিনি৷ খাতা খুলতে পারেননি গুলবদিন নায়েব৷ নবি ৩টি চার ও ৭টি ছক্কার সাহায্যে ৫৪ বলে ৮৪ রান করে অপরাজিত থাকেন৷ সইফুদ্দিন ৪টি ও শাকিব ২টি উইকেট নেন৷

জবাবে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ নিয়মিত অন্তরে উইকেট হারাতে থাকে৷ মাহমুদুল্লাহ দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন৷ সাব্বির আউট হন ২৪ রান করে৷ এছাড়া আফিফ হোসেন ১৬, শাকিব ১৫ ও মুস্তাফিজুর রহমান ১৫ রানের যোগদান রাখেন৷ মুজির ১৫ রানের বিনিময়ে ৪টি উইকেট নেন৷ ২টি করে উইকেট নিয়েছেন ফরীদ আহমেদ, রশিদ খান ও গুলবদিন নায়েব৷ ম্যাচের সেরা হয়েছেন নবি৷ আফগানিস্তান ২ ম্যাচে ৪ পয়েন্ট নিয়ে আপাতত লিগ টেবিলের শীর্ষে রয়েছে৷