কাবুল: আফগানিস্তানে মারাত্মক অপরাধে অভিযুক্ত হয়ে আটক উগ্র তালিবান গোষ্ঠীর ৪০০ সদস্যকে মুক্তি দেওয়ার বিষয়টি অনুমোদন করল আফগান পর্ষদ লয়া জিরগা। আফগান সরকার এবং তালিবানদের মধ্যে থেমে যাওয়া শান্তি আলোচনা আবার নতুন করে শুরু করার জন্য এই সব বন্দিদের মুক্তি দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে।

তিন দিনের আলোচনার পর রবিবার ৪০০ বন্দিকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। আফগানিস্তানের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই লয়া জিরগার অধিবেশনে জানিয়েছেন, এ দিনটি খুবই আনন্দের।

তার কাছে যে তথ্য রয়েছে তাতে বলা যায় যে তালিবানদের ৪০০ বন্দিকে মুক্তি দেওয়ার পর আফগান সরকার এবং তালিবানের মধ্যে শান্তি আলোচনা কয়েক দিনের মধ্যে শুরু হতে যাচ্ছে।

অন্যদিকে আফগানিস্তানের প্রধান নির্বাহী এবং প্রধান আলোচক আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ জানিয়েছেন, লয়া জিরগার সিদ্ধান্তের ফলে শান্তি আলোচনার পথে প্রধান বাধা দূর হয়ে নিয়েছে। এবার আলোচনা শুরু করা সময়ের ব্যাপার মাত্র।

গত ২৯ ফেব্রুয়ারি তালিবান এবং মার্কিন সরকারের মধ্যে যে শান্তি চুক্তি সই হয় সেখানে ৫,০০০ তালিবান বন্দির মুক্তির কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু আফগান সরকার যেহেতু এই চুক্তিতে সরাসরি কোনও অংশ ছিল না সে কারণে তারা বন্দিদের মুক্তি দেওয়ার ব্যাপারে খুব একটা আগ্রহী ছিল না।

অন্যদিকে, তালিবানদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই পাঁচ হাজার বন্দিকে মুক্তি দিলে তবেই শুধুমাত্র তারা আফগান সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় বসবে।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও