পাটনা: বিজেপির সঙ্গে অন্তত বছর ২০-র সঙ্গ ত্যাগ করে সদ্য কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন শত্রুঘ্ন সিনহা। তবে তাঁর কোনও আফশোষ নেই। তিনি মনে করেন, তিনি সঠিক পথেই যাচ্ছেন।

এনডিটিভি-কে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে শত্রুঘ্ন সিনহা বলেন, ”বিজেপি ছেড়ে আসার সময় আদবাণীজির আশীর্বাদ নিয়ে এসেছিলাম। কিন্তু উনি আমাকে থামাননি।’ তিনি আরও বলেন, ‘আদবাণীজির চোখে জল এসে গিয়েছিল কিন্তু উনি বলেননি যে – মত যাও। শুধু বলেছিলেন ‘Okay, love you’.

২০১৯ সালেই দলের সঙ্গে সব সম্পর্ক শেষ করে দিয়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন বিহারীবাবু। লালকৃষ্ণ আদবানি কেন এই কথা বলেছিলেন তা নিয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ চলছে। তবে এটাও ঠিক দলে থেকে প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে বিরাগভাজন হয়েছিলেন শত্রুঘ্ন। তবে তাঁর আক্রমণের বিষয় হয়তো সঠিক ছিল।

এই শত্রুঘ্ন সিনহা তিনি বলেন, ‘‌আমি কখনও আমার ধনুক নামিয়ে রাখব না। আদবানিজির মতো। যে আমাকে বসতে বললে বসব।’‌ বুধবার একদিকে তিনি মোদীর সরাসরি সমালোচনা করেন। উল্লেখ্য, এবার প্রথম লোকসভা নির্বাচে টিকিট দেওয়া হয়নি লালকৃষ্ণ আদবাণীকে। তাঁর জায়গায় গান্ধীনগরে প্রার্থী হয়েছেন অমিত শাহ।

অন্যদিকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, ‘‌যখনই প্রধানমন্ত্রীকে কর্মসংস্থানের কথা জিজ্ঞাসা করেছি, তিনি সবসময় পুলওয়ামা প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন। কেন তিনি এই প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছেন না?‌ মমতার সুরে সুর মেলান তিনিও। বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাদের বন্ধু এবং সেই লৌহ মানবী ঠিকই বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী এক্সপায়ারি ডেট এসে গিয়েছে।’‌