দেরাদুন : ওয়ানাড়ে রাহুল গান্ধী মুসলিম লিগের সঙ্গে জোট করেছেন৷ তারপরেও কী করে কংগ্রেস দলটা ধর্মনিরপেক্ষ থাকে? উত্তরাখণ্ডের কাশিপুরে এক নির্বাচনী জনসভায় এমনই প্রশ্ন তুললেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ৷

তাঁর দাবি ধর্মনিরপেক্ষতার মুখোশ পরে রয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী৷ অথচ ওয়ানাড়ে গিয়ে মুসলিম লিগের সঙ্গে জোট করছেন৷ এটা কী ধরণের মানসিকতা? পাশাপাশি, আদিত্যনাথের অভিযোগ, কংগ্রেস ও মুসলিগ লিগের জোট মিছিলে লিগের সবুজ পতাকা নিয়ে হাঁটা যাবে না বলেও ফরমান জারি করেছেন রাহুল গান্ধী৷

এখানেই প্রশ্ন আদিত্যনাথের৷ তিনি বলেন বিজেপি সারা দেশে ছড়িয়ে সব ধর্মের জন্য সমান ভাবে কাজ করে৷ অথচ সাম্প্রদায়িক বলে বদনাম কুড়ায়৷ তাহলে কংগ্রেস কী? উত্তরপ্রদেশের হিন্দুরা রেগে যাবে, তাই মুসলিম লিগের নেতাদের পতাকা ছাড়া মিছিলে হাঁটার নির্দেশ দিয়েছে কংগ্রেস বলে অভিযোগ তাঁর৷

এছাড়াও লোকসভা নির্বাচনের পরে ক্ষমতায় এলে আফস্পা প্রত্যাহারের যে প্রতিশ্রুতি কংগ্রেস দিয়েছে, তার কড়া সমালোচনা করেন মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি বলেন কংগ্রেস দেশদ্রোহীদের ওপর থেকে যাবতীয় অভিযোগ তুলে নিতে চাইছে বলেই এই ধরণের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে৷

কংগ্রেস নিজের ইস্তেহারে রাষ্ট্রদ্রোহ আইন ও আফস্পা তুলে দিতে চাইছে, তার একটাই কারণ, কংগ্রেস চায় দেশে সন্ত্রাসের বাড়বাড়ন্ত হোক৷ উল্লেখ্য উত্তরপ্রদেশের আমেঠির সঙ্গেই কেরালার ওয়ানাড লোকসভা থেকে ভোটে লড়ছেন রাহুল গান্ধী৷ সেখানে ভোট ২৩শে এপ্রিল৷ আজই মনোনয়ন জমা দেন কংগ্রেস সভাপতি৷

কংগ্রেস সূত্রে খবর, এদিন সকাল সাড়ে ন’টায় কংগ্রেস সভাপতিকে নিয়ে বিশাল ব়্যালি বের হয়৷ কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে গিয়েই মনোনয়ন জমা দেন ওয়ানাড কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী রাহুল গান্ধী৷ সঙ্গে ছিলেন দলের তরফে পূর্ব উত্তরপ্রদেশের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরাও৷ বুধবার রাতেই ভাই-বোন পৌঁছে গিয়েছেন কোঝিকোড়৷ বৃহস্পতিবার সকালেই নিজের নির্বাচনী এলাকায় যান রাহুল৷