নয়াদিল্লিঃ করোনা লকডাউনে দেশের বিভিন্নপ্রান্তে আটকে রয়েছেন বহু শ্রমিক, তাঁদের সঙ্গে নেই যথেষ্ট খাবার, পোশাক এবং প্রয়োজনীয় ওষুধ। অনিশ্চয়তায় তাঁরা দিশাহীন। এই পরিস্থিতির বর্ণনা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিয়েছেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

শুক্রবার একটি চিঠিতে তিনি রাস্তার অসহায়তা থেকে শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর ব্যবস্থার আর্জি জানিয়েছেন। তা যদি একান্ত সম্ভব না হয় তাহলে বাড়ির কাছাকাছি কোথাও যেন পৌঁছনোর ব্যবস্থা করার যেখান থেকে সংশ্লিষ্ট রাজ্য তাঁর দায়িত্ব নিতে পারে। এই অনুরোধ জানিয়েছেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

স্পর্শকাতর করোনা পরিস্থিতিতে শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর ক্ষেত্রে তিনি ‘কোভিড প্রোটেকশন ট্রেন’ ব্যবহার করার আর্জি জানিয়েছেন। যাদের এই পরিষেবা সত্যিকারের প্রয়োজন অর্থাৎ গরীব যাদের কাছে নেই টাকা, অসহায় শ্রমিকদের কিছুটা মানসিক কষ্ট দূর করতে এমন অনুরোধ জানিয়েছেন লোকসভার কংগ্রেস সাংসদ।

ইতিবাচক উত্তরের আশা করে গরীব, অসহায় শ্রমিকদের হয়ে ঘরে ফেরার আর্জি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে সুপারিশ করেছেন জনদরদি এই নেতা।

এর আগে, লকডাউনে যারা ঘরে ফিরছিলেন তাঁদের খাবারের ব্যবস্থা করতে দেখা গিয়েছে। জনমানবহীন রাস্তায় নেই খাবার, নেই পর্যাপ্ত প্রয়োজনীয় সামগ্রী। এই পরিস্থিতিতে অভুক্তদের মুখে খাবার তুলে দিতে সক্রিয়ভাবে ময়দানে নামতে দেখা গিয়েছে কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে।

শুধু তাই নয়, খাবার তৈরিতে হাত লাগানোর পাশাপাশি নিজে হাতে খাবার পরিবেশন করতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে। লকডাউনে সাধারণ মানুষের খাবারের অভাব দূর করতে তাঁদের মুখে অন্ন তুলে দিচ্ছে এই কংরেস নেতা।

সাধারণের খিদে মেটাতে তৈরি হয়েছে কমিউনিটি কিচেন। যেখানে সেইরকম মানুষদের জন্য হয়েছে খাবারের ব্যবস্থা। ঘরমুখী গরীব যারা খাবারের সমস্যায় পরেছেন তাঁরা সেখানে গিয়ে খাবার নিতে পারেন। দিল্লির কনউট প্লেসে সেইরকম একটি কমিউনিটি কিচেনে প্রয়োজনীয় এবং অভুক্তদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা হচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া রুখতে সতর্কতা একান্ত জরুরি। এই সময়ের মধ্যে ভারতের বাইরে যেতে বা বিদেশ থেকে ভারতে ফিরে আসার সময় সরকারের নির্দেশিকা মেনে চলা উচিত। তাছাড়া সাধারণ সতর্কতা অবলম্বনের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দেওয়া নির্দেশিকা মেনে চলা দরকার। সহায়তার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রকের বিশেষ হেল্পলাইন নম্বর +91-11-23978046 বা মেইল আইডিতে ncov2019@gmail.com যোগাযোগ করুন।