স্টাফ রিপোর্টার, বহরমপুর: রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে খোলাখুলি চ্যালেঞ্জ মুর্শিদাবাদের বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরি৷ বুধবার তিনি বলেন ‘আমি আবারও আমি আমার বিরুদ্ধে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভোটে অংশগ্রহণ করতে চ্যালেঞ্জ জানাচ্ছি। এখনও মনোনয়ন পত্র শেষ হয়নি।’ বুধবার দুপুরে বহরমপুরে জেলা কংগ্রেস পার্টি অফিসে সাংবাদিক বৈঠকে এই মন্তব্যই করেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

এদিন তিনি বলেন “আপনার হাতে সরকার, আপনার হাতে যুবশ্রী, আপনার হাতে কন্যাশ্রী, আপনার হাতে পুলিশশ্রী, আপনার হাতে মস্তানশ্রী৷ সব শ্রী আপনার হাতে। সরকার আপনার হাতে, আপনি জনপ্রতিনিধি তাই আসুন বহরমপুরে আমার বিরুদ্ধে ভোটে দাঁড়ান এবং জিতে দেখান৷ যদি জিতে দেখাতে পারেন তো আমি রাজনীতি করা ছেড়ে দেব। আবারও খোলা চ্যালেঞ্জ থাকল।”

পুলিশের ভূমিকা নিয়ে এদিন কড়া সমালোচনা করেন অধীর চৌধুরি৷ বলেন “এই নির্বাচনের আগে পুলিশের একটি সাইলেন্ট থ্রেট চলছে। কংগ্রেসের সক্রিয় কর্মীদের ভয় দেখানো হচ্ছে। কংগ্রেস কর্মীদের বলছি ভয় পেয়না৷ নির্বাচনের পর আমরা পুলিশের এই সাইলেন্ট থ্রেটের বিরোধিতায় আন্দোলনে নামবো। এই নিবার্চনে মুর্শিদাবাদ জেলায় শুধু জয়লাভ নয়৷ আমাদের উদ্যেশ্য জেলায় কংগ্রেসের সংগঠনকে ৪ গুণ শক্তিশালী করা।”

রাজ্যে লোকসভা ভোটে তৃণমূল কংগ্রেস তাঁকে ভয় পাচ্ছে বলে এদিন কটাক্ষ করেন অধীর চৌধুরি৷ তিনি বলেন শাসক দলের প্রচারের অভিমুখ তাঁর দিকে৷ এতে তিনি গর্ব বোধ করছেন৷

শাসক দলের দালালি করছে পুলিশ৷ এমনই অভিযোগ অধীর চৌধুরির৷ তিনি বলেন “এখানে পুলিশের অফিসারেরা অত্যাচার করছে৷ আর তাতে জড়িত আছে এসপি, অ্যাডিশনাল এসপি, আইসি ও ওসি৷ নিচুতলার পুলিশ কর্মীরাও আজ অত্যাচারিত৷ পুলিশের একটি অংশ দালালি করছে৷ সমস্ত পুলিশ তো আমাদের বিরুদ্ধে নয়,তাই আমাদের ভয় পাওয়ার কোন কারন নেই। যারা এই সব দালালির কাজ করছে, তাদের বিরুদ্ধে আমরা নির্বাচন কমিশনকে জানাচ্ছি।”